|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * জিয়াউর রহমান ১৫ আগস্ট হত্যাকাণ্ডের অন্যতম প্রধান কুশীলব : তথ্যমন্ত্রী   * ই-নামজারিতে স্বাক্ষরবিহীন কিউআর কোডযুক্ত ডিসিআর ও খতিয়ান চালু   * করোনায় ৩ জনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ৬.৬৪ শতাংশ   * শেখ হাসিনার সুকৌশলী নেতৃত্বে সারাদেশেই উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে : স্পিকার   * করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৯ জনের মৃত্যু   * করোনায় একদিনে মৃত্যু ১২, বেড়েছে শনাক্ত   * পদ্মা সেতুতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে হাস্যোজ্জ্বল জয়-পুতুল   * ঈদে বাড়ি ফিরতে ১২ নির্দেশনা মানার পরামর্শ ডিএমপির   * পদ্মা সেতুতে ৮ ঘণ্টায় টোল আদায় ৮২ লাখ   * পদ্মা সেতুর জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছে এশিয়ার ৫ দেশ  

   জাতীয় -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
চলতি সপ্তাহেই শুরু হচ্ছে শিশুদের টিকাদান

চলতি সপ্তাহেই শুরু হচ্ছে ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের টিকা কার্যক্রম। শুরুতে ঢাকা শহরের কিছু বিদ্যালয়ে এ টিকা দেওয়া হবে, এমনকি পর্যায়ক্রমে সারাদেশে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম।

সোমবার (১ আগস্ট) সকালে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে পরিদর্শনে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি জানান, শিশুদের টিকা নিয়ে আসাদের যাবতীয় প্রস্তুতি শেষ করা আছে। আমাদের হাতে পর্যাপ্ত টিকাও মজুদ আছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক দেশে এলেই দিনক্ষণ ঠিক করে আমরা টিকা কার্যক্রম শুরু করবো। মহাপরিচালক বলেন, ঢাকার যে সব এলাকায় কোভিডে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেশি হয়েছে সে এলাকায় আগে টিকা দেওয়া হবে।

শিশুদের টিকার নিবন্ধন প্রসঙ্গে এর আগে ঢাকা পোস্টকে তিনি বলেছিলেন, আমাকে শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, সুরক্ষা অ্যাপস বাচ্চাদের নিবন্ধনের জন্যে খুলে দেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে রেজিস্ট্রেশন শুরু হয়ে গেছে। এদিকে ২৮ জুলাই মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের এক অফিস আদেশে বলা হয়, শিক্ষার্থীদের বয়সসীমা হবে ৫ বছর থেকে ১১ বছর (১১ বছর ৩৬৪ দিন)। এ বয়সসীমার শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন গ্রহণ করতে অবশ্যই সুরক্ষা অ্যাপ/সুরক্ষা ওয়েবসাইটে নিবন্ধিত হতে হবে। এতে আরও বলা হয়, যেসব শিক্ষার্থীর ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর নেই তাদের অবশ্যই ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন করতে হবে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান প্রধান ও অভিভাবকরা বিষয়টি নিশ্চিত করবেন। এরইমধ্যে ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের জন্য বিশেষভাবে তৈরি ১৫ লাখ ২ হাজার ৪০০ ডোজ ফাইজারের টিকা দেশে এসে পৌঁছেছে। কোভ্যাক্স ফ্যাসিলিটির আওতায় বাংলাদেশ এ টিকা পেয়েছে।

চলতি সপ্তাহেই শুরু হচ্ছে শিশুদের টিকাদান
                                  

চলতি সপ্তাহেই শুরু হচ্ছে ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের টিকা কার্যক্রম। শুরুতে ঢাকা শহরের কিছু বিদ্যালয়ে এ টিকা দেওয়া হবে, এমনকি পর্যায়ক্রমে সারাদেশে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম।

সোমবার (১ আগস্ট) সকালে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে পরিদর্শনে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি জানান, শিশুদের টিকা নিয়ে আসাদের যাবতীয় প্রস্তুতি শেষ করা আছে। আমাদের হাতে পর্যাপ্ত টিকাও মজুদ আছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক দেশে এলেই দিনক্ষণ ঠিক করে আমরা টিকা কার্যক্রম শুরু করবো। মহাপরিচালক বলেন, ঢাকার যে সব এলাকায় কোভিডে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেশি হয়েছে সে এলাকায় আগে টিকা দেওয়া হবে।

শিশুদের টিকার নিবন্ধন প্রসঙ্গে এর আগে ঢাকা পোস্টকে তিনি বলেছিলেন, আমাকে শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, সুরক্ষা অ্যাপস বাচ্চাদের নিবন্ধনের জন্যে খুলে দেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে রেজিস্ট্রেশন শুরু হয়ে গেছে। এদিকে ২৮ জুলাই মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের এক অফিস আদেশে বলা হয়, শিক্ষার্থীদের বয়সসীমা হবে ৫ বছর থেকে ১১ বছর (১১ বছর ৩৬৪ দিন)। এ বয়সসীমার শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন গ্রহণ করতে অবশ্যই সুরক্ষা অ্যাপ/সুরক্ষা ওয়েবসাইটে নিবন্ধিত হতে হবে। এতে আরও বলা হয়, যেসব শিক্ষার্থীর ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর নেই তাদের অবশ্যই ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন করতে হবে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান প্রধান ও অভিভাবকরা বিষয়টি নিশ্চিত করবেন। এরইমধ্যে ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের জন্য বিশেষভাবে তৈরি ১৫ লাখ ২ হাজার ৪০০ ডোজ ফাইজারের টিকা দেশে এসে পৌঁছেছে। কোভ্যাক্স ফ্যাসিলিটির আওতায় বাংলাদেশ এ টিকা পেয়েছে।

ই-নামজারিতে স্বাক্ষরবিহীন কিউআর কোডযুক্ত ডিসিআর ও খতিয়ান চালু
                                  

 ই-নামজারিতে স্বাক্ষরবিহীন কিউআর কোডযুক্ত ডিসিআর ও খতিয়ান চালু করা হয়েছে।
ভূমি মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ এ কথা জানিয়ে বলা হয়, ই-নামজারি প্রক্রিয়ায় প্রণীত খতিয়ান ও ডিসিআর-এর নতুন ফরমেটে কিউআর কোড সংযুক্ত করা হয়েছে।
কিউআর কোডযুক্ত ডিসিআর ও খতিয়ানে সহকারী কমিশনার (ভূমি) বা নাজিরের ম্যানুয়াল স্বাক্ষরের প্রয়োজ নেই।
ভূমিসেবাকে জনবান্ধব করতে ভূমির সকল সেবাকে ডিজিটাইজড করা হচ্ছে। এই লক্ষ্যে ই-মিউটেশন প্রক্রিয়ায় প্রণীত খতিয়ান ও ডিসিআরের নতুন ফরমেটে কিউআর কোড সংযুক্ত করা হয়েছে।
কিউআর কোডযুক্ত ডিসিআর ও খতিয়ান ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে প্রদত্ত ডিসিআর ও খতিয়ানের সমতুল্য এবং আইনগতভাে বৈধ ও সর্বক্ষেত্রে গ্রহণযোগ্য ও ব্যবহারোপযোগী।
কিউআর কোডযুক্ত ডিসিআর ও খতিয়ান প্রাপ্তির পর ভূমি অফি থেকে ম্যানুয়াল ডিসিআর, খতিয়ান সংগ্রহ করার প্রয়োজ নেই। 
ভূমি মন্ত্রণালয়ের ভূমিসেবা কাঠামো অথবা সরাসরি ই-নামজারি ওয়েবসাইটে গিয়ে কিউআর কোড স্ক্যান করে কিউআ কোডযুক্ত অনলাইন ডিসিআর এবং কিউআর কোডযুক্ত অনলাইন খতিয়ানের বৈধতা সহজেই যাচাই করা যাবে। 
ইতোমধ্যে এই সংক্রান্ত একটি পরিপত্র জারি করা হয়েছে।সুত্রঃবাসস

চট্টগ্রামে ট্রেন-মাইক্রোবাসের সংঘর্ষ, নিহত ১১
                                  

চট্টগ্রাম জেলার মীরসরাইয়ে মহানগর প্রভাতী ট্রেনের ধাক্কায় পর্যটকবাহী মাইক্রোবাসের ১১ যাত্রী নিহত হয়েছেন। 

শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে মিসরাই বড়তাকিয়া রেলস্টেশনের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিক নিহতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি। তবে নিহতরা সবাই পর্যটক বলে নিশ্চিত করেছে ফায়ারসার্ভিস।

জানা গেছে, খৈয়াছড়া ঝর্ণা দেখে পর্যটকদের নিয়ে ফেরার সময় মাইক্রোবাসটির সাথে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা মহানগর প্রভাতী ট্রেনের সংঘর্ষ হয়। মিরসরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কবির হোসেন জানান, ঢাকা থেকে চট্টগ্রামমুখী একটি ট্রেনের সাথে ধাক্কা খায় মাইক্রোবাসটি। এতে ঘটনাস্থলে ১১ জন মারা যান। আহত হন তিনজন। হতাহতদের বাড়ি হাটহাজারীর আমানবাজার এলাকায় বলে জানা গেছে।

করোনায় আরও একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৫৫
                                  

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে ৩৫৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৫ দশমিক ৮৪ শতাংশ। শুক্রবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এ নিয়ে দেশে এ পর্যন্ত ২০ লাখ ৪ হাজার ৫৪৩ জনের করোনা শনাক্ত হলো এবং তাদের মধ্যে মারা গেছেন ২৯ হাজার ২৮৫ জন।

কটিয়াদীতে ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল, তিন ঘণ্টা পর চলাচল স্বাভাবিক
                                  

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে গচিহাটা রেলওয়ে স্টেশনের কাছে সকাল ৬:৫০ মিনিটে ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায় । তিন ঘণ্টা পর ভৈরব-ময়মনসিংহ রুটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয় । শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে আন্তঃনগর এগারসিন্দুর প্রভাতি ট্রেনটি নতুন ইঞ্জিনের মাধ্যমে ঢাকার উদ্দেশ্যে ঘটনাস্থল থেকে ছেড়ে গেছে। চিহাটা রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার মোসাহাব উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানানসকাল :৫০ মিনিটের দিকে কটিয়াদী উপজেলাধীন গচিহাটা রেলস্টেশনের কাছে আন্তঃনগর এগারসিন্দুর প্রভাতি ট্রেনটির ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায় এতে ভৈরব-ময়মনসিংহ লাইনে ট্রেন চলাচল সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে পড়ে  ঘটনায়র পর আখাউড়া স্টেশন থেকে উদ্ধারকারী রিলিফ ট্রেন এলে নতুন ইঞ্জিনের মাধ্যমে সকাল :৫০ মিনিটে ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশ্যে ঘটনাস্থল থেকে ছেড়ে গেছে তিন ঘণ্টা পরে ভৈরব-ময়মনসিংহ লাইনে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে

স্থগিত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু ১৫ সেপ্টেম্বর
                                  

চলতি বছরের স্থগিত হওয়া মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমান পরীক্ষা আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর শুরু হবে।এছাড়া এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হবে নভেম্বরে।
আজ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ডা.দীপু মনি এ তথ্য জানান।
গত ১৯ জুন থেকে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও সিলেট ও সুনামগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ভয়াবহ বন্যার কারণে  বিভিন্ন এলাকা তলিয়ে যাওয়ায় ১৭ জুন শুক্রবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা স্থগিতের ঘোষণা দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

শেখ হাসিনার সুকৌশলী নেতৃত্বে সারাদেশেই উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে : স্পিকার
                                  

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুকৌশলী নেতৃত্বে সারাদেশেই উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। এরই ধারাবাহিকতায় পীরগঞ্জের প্রতিটি ইউনিয়নেও উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান রয়েছে। করোনাকালীন অভিঘাতেও তা একমুহূর্তের জন্য স্থবির হয়নি। 
আজ মঙ্গলবার রংপুরের চৈত্রকোল ইউনিয়নস্থ সাধক কবি কাজী হায়াৎ মামুদ মাজার প্রাঙ্গনে ১নং চৈত্রকোল ও ২নং ভেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নের উপকারভোগীদের মধ্যে বাই সাইকেল, সেলাই মেশিন, হুইল চেয়ার ও স্প্রে মেশিন বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। 
অনুষ্ঠানের শুরুতেই স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে স্পিকারকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। এরপরে ১নং চৈত্রকোল ও ২নং ভেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নের উপকারভোগীদের মধ্যে ১১টি করে মোট ২২টি সেলাই মেশিন, ১০ টি করে মোট ২০ টি স্প্রেয়ার মেশিন, ১০ টি করে মোট ২০ টি হুইল চেয়ার এবং ৫০ টি করে মোট ১০০ টি বাইসাইকেল বিতরণ করা হয়। 
পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক নুরুল আমিন রাজার সভাপতিত্বে এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পীরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র এ এস এম তাজিমুল ইসলাম শামীমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে ভেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদিকুল ইসলাম সাদিক, চৈত্রকোল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিকুজ্জামান শাহ বক্তব্য রাখেন।  
শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, বাংলা সাহিত্যে মধ্যযুগীয় কাব্যধারার শেষ কবি কাজী হায়াৎ মামুদের মত সকল বিশিষ্টজনের স্মৃতিকে অমর করার লক্ষ্যে কাজ চলছে। এ লক্ষ্যে কাজী হায়াৎ মামুদ কমপ্লেক্স নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। 
তিনি বলেন, জেলা পরিষদ থেকে স্পিকার বরাবর বরাদ্দকৃত টাকায় ভেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নে মাল্টিপারপাস ট্রেনিং সেন্টার নির্মাণ এবং দুগ্ধ ও মাংস উৎপাদনের সাথে জড়িত মা বোনদের জন্য সমবায় সমিতি গঠন করা হবে। যাতে ইউনিয়নে বসেই কর্মক্ষম মহিলারা উপজেলার সুবিধা ভোগ করতে পারেন।  
স্পিকার বলেন, পীরগঞ্জকে মডেল উপজেলা হিসেবে গঠন করার মাস্টার প্লান প্রক্রিয়াধীন আছে। নির্বাচনী অঙ্গীকার হিসেবে পীরগঞ্জের মা বোনদের দুঃখ দুর্দশা দূরীকরণে জন্য সকল উন্নয়ন কর্মকান্ডের সফল বাস্তবায়নের উপর গুরুত্ব আরোপ করেন তিনি। 
এরপরে শিরীন শারমিন চৌধুরী উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় করেন। 
এতে উপস্থিত ছিলেন রংপুর জেলার জেলা পুলিশ সুপার ফেরদৌস আলী চৌধুরী, জেলা প্রশাসক আসিফ আহসান, উপজেলা চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মন্ডল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শাহিদুল ইসলাম পিন্টু, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিরোদা রাণী রায়, স্থানীয় ও জেলা পর্যায়ের আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।সুত্রঃবাসস

পদ্মা সেতুতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে হাস্যোজ্জ্বল জয়-পুতুল
                                  

সড়ক পথে নিজের স্মৃতি বিজরিত পৈত্রিক বাড়ি গোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়ায় যাওয়ার পথে পদ্মা সেতুতে সন্তানদের নিয়ে সেলফি তুলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (৪ জুলাই) ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয় ও মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ পুতুলকে নিয়ে পদ্মা সেতুতে সেলফি তোলেন তিনি। পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পর সড়ক পথে গোপালগঞ্জে এটা প্রধানমন্ত্রীর প্রথম সফর। এর আগে সাড়ে তিন বছর আগে তিনি সড়ক পথে টুঙ্গীপাড়ায় যান।

সোমবার (৪ জুলাই) সকাল ৮টায় গণভবন থেকে টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর ৮টা ৪৮ মিনিটে মাওয়া টোল প্লাজায় পদ্মা সেতুর টোল দিয়ে ওঠেন সেতুতে।

পদ্মা সেতু পার হওয়ার সময় সেখানে নেমে কিছুক্ষণ অবস্থান করেন প্রধানমন্ত্রী ও তার দুই সন্তান। এ সময় পদ্মা সেতুর সৌন্দর্য উপভোগ করেন তারা।

সেলফি তোলার পর সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ‌্যমে ফেসবুকে নিজের ভেরিফাইড পেজে শেয়ার করেছেন প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়। মাত্র ৩২ মিনিটে প্রায় ৯ হাজারের মতো কমেন্ট এসেছে প্রধানমন্ত্রী ও তার সন্তানদের শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা জানিয়ে।

পরে পদ্মা সেতু পার হয়ে সকাল সোয়া ৯টার দিকে প্রধানমন্ত্রী জাজিরা প্রান্তে যান এবং সেখানে ফলকের সামনে কিছু সময় দাঁড়ান। এরপর প্রায় ৪০ মিনিট বিশ্রাম নেন জাজিরা প্রান্তের সার্ভিস এরিয়া-২ এ। সোয়া ১০টায় সেখান থেকে টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন প্রধানমন্ত্রী। বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে পৈত্রিক বাড়িতে প্রবেশ করেন তিনি।

টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছানোর পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের শহীদ সদস্যদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে ফাতেহাপাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন।

প্রধানমন্ত্রীর টুঙ্গীপাড়া সফরকে কেন্দ্র করে পুলিশ প্রশাসন তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

ঈদে বাড়ি ফিরতে ১২ নির্দেশনা মানার পরামর্শ ডিএমপির
                                  

আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে ঘরমুখো মানুষের জন্য ১২টি নির্দেশনা দিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। নাগরিকদের ঈদ আনন্দ নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করার লক্ষ্যে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

নির্দেশনাগুলো :

১. ঢাকা মহানগরীতে দূরপাল্লার ও আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালের অভ্যন্তরে এবং বাইরের সড়কে বাস রেখে বা থামিয়ে যাত্রী ওঠানো যাবে না। যাত্রীরা টার্মিনালের ভেতরে থাকা অবস্থায় বাসের আসনগ্রহণ করতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বাসের প্রতিনিধিদের এ বিষয়টি খেয়াল রাখতে হবে।

২. ঢাকা মহানগরীতে আন্তঃজেলা ও দূরপাল্লার বাসগুলো টার্মিনাল সংলগ্ন প্রধান সড়কের অংশ দখল করে থামবে না।

৩. ভ্রমণকালে ঢাকা মহানগরের প্রবেশ ও বের হওয়ার পথের গণপরিবহনগুলো শৃঙ্খলা মেনে চলতে হবে, যেন অযাচিত যানজটের সৃষ্টি না হয়।

৪.ঢাকা মহানগর থেকে ছেড়ে যাওয়া দূরপাল্লার যানবাহনগুলোকে অতিরিক্ত যাত্রী ও মালামাল বহন থেকে নিবৃত থাকতে হবে।

৫. আন্তঃজেলা পরিবহনের যাত্রীরা বা গমনপ্রত্যাশীদের প্রধান সড়কে এসে অপেক্ষা বা দাঁড়িয়ে না থেকে টার্মিনালের ভেতরে অবস্থান করতে হবে।

৬. ঢাকা মহানগর থেকে দূরপাল্লার রুট পারমিটবিহীন বা অননুমোদিত রুটে কোনো বাস চলাচল করবে না। বাসের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাই এ বিষয়টি কঠোরভাবে মেনে চলবেন এবং কর্তৃপক্ষকে সহায়তা করবেন।

৭. বাসের ভেতরে যাত্রীদের অপরিচিত কারও কাছ থেকে কিছু না খাওয়ার জন্য পরামর্শ দেওয়া হলো।

৮. সংশ্লিষ্ট যাত্রীরা অবশ্যই যানবাহনে টিকিট সঙ্গে রাখবেন।

৯. যাত্রীদের মালামাল নিজ হেফাজতে সাবধানে রাখবেন।

১০. কোনো যানবাহনেই ছাদের ওপর অতিরিক্ত যাত্রী বহন করবে না।

১১. যাত্রী তোলার ক্ষেত্রে বাসচালকরা এমন কোনো অসম প্রতিযোগিতায় অংশ নেবেন না। এতে সড়কের শৃঙ্খলায় বিঘ্ন ঘটে ও জীবনহানির শঙ্কা থাকে।

১২. করোনার প্রকোপ ঊর্ধ্বগতি বিধায় পরিবহন চালক ও যাত্রী সবাইকে যথাযথ স্বাস্থবিধি অনুসরণ করে যাতায়াত করতে হবে।

প্রয়োজনে ট্রাফিক কন্ট্রোল রুমের মোবাইল নম্বর ০১৭১১-০০০৯৯০ অথবা জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ কল করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছে ডিএমপির ট্রাফিক বিভাগ।

পদ্মা সেতুতে ৮ ঘণ্টায় টোল আদায় ৮২ লাখ
                                  

পদ্মা সেতুতে প্রথম ৮ ঘণ্টায় ৮২ লাখ ১৯ হাজার ৫০ টাকার টোল আদায় করা হয়েছে। এসময় গাড়ি চলাচল করেছে ১৫ হাজার ২০০টি।

রোববার (২৬ জুন) বিকেলে বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আবুল হোসেন এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ৮ ঘণ্টায় মাওয়া প্রান্তে ৮ হাজার ৪৩৮টি গাড়ি থেকে আয় ৪৬ লাখ ৮৯ হাজার ৫৫০ টাকা। জাজিরা প্রান্তে ৬ হাজার ৭৬২টি গাড়ি থেকে আয় ৩৫ লাখ ২৯ হাজার ৫০০ টাকা।

প্রকৌশলী আবুল হোসেন বলেন, সকাল থেকে যেসব গাড়ি চলাচল করেছে তার ৬০ শতাংশই মোটরসাইকেল। সে তুলনায় বড় যানবাহন কিছুটা কম।

সেতুর টোলপ্লাজায় দায়িত্বরত এই কর্মকর্তা আরও বলেন, সকাল থেকেই আমরা প্রস্তুত ছিলাম। ৬টার আগেই আমরা যানচলাচলের জন্য কাজ শুরু করি।

রোববার ভোর ৫টা ৪০ মিনিটে সর্বসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হয় পদ্মা সেতু। দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের দীর্ঘ প্রতীক্ষিত পদ্মা সেতু পার হয়ে ঢাকায় আসতে দীর্ঘদিন যে অসহনীয় দুর্ভোগ ও কষ্ট ছিল আজ থেকেই তা দূর হয়েছে।

প্রতীক্ষার প্রহর শেষ, রাত পোহালেই খুলছে স্বপ্ন দুয়ার
                                  

রাত পোহালেই দীর্ঘ প্রতীক্ষার প্রহরের অবসান হচ্ছে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষের। উদ্বোধন হচ্ছে স্বপ্নের পদ্মা সেতু। সারাদেশের দৃষ্টি এখন পদ্মা সেতুর দিকে।

শনিবার (২৫ জুন) উদ্বোধন হতে যাচ্ছে দেশের ইতিহাসে সর্ববৃহৎ এ অবকাঠামো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বহুল কাঙ্ক্ষিত এই সেতুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন।

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনকে কেন্দ্র করে রাজধানীসহ সারাদেশেই উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। এই সেতুর দুই পাড়ের মানুষ ভাসছেন আনন্দ উচ্ছ্বাসে। বন্যাকবলিত এলাকা ছাড়া সারাদেশের মানুষ উৎসবের প্রস্তুতি নিয়েছে। দেশের সব এলাকা থেকে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সম্প্রচার করা হবে।

এদিকে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে মাদারীপুরের শিবচরের কাঁঠালবাড়ির ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী ফেরিঘাটে অনুষ্ঠেয় জনসভাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

পদ্মা সেতু উদ্বোধনকে কেন্দ্র করে সেতুর দুই প্রান্ত সেজেছে নতুন সাজে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় মহাসড়ক তথা ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ে ছেয়ে গেছে রঙবেরঙের ব্যানার-ফেস্টুনে। প্রাণের সে উৎসবের ছটা পড়েছে সবখানে। সড়ক-মহাসড়ক, রাস্তাঘাট, হাটবাজার ও অলিগলি ছেয়ে গেছে পোস্টার, ব্যানার, বিলবোর্ড আর তোরণে। গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে আলোকসজ্জা করা হয়েছে। জনসমাবেশকে জনসমুদ্রে পরিণত করতে কয়েকদিন ধরেই প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারা। এ জন্য স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ছাড়াও দলটির কেন্দ্রীয় নেতারা তদারকি করছেন। তাদের আশা এই সমাবেশে ১০ লাখেরও বেশি জনসমাগম হবে। জনসভা মাঠের নিরাপত্তা জোরদার করতে কাজ করছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এদিকে বৈরী আবহাওয়া মোকাবিলা করে জনসভা সফল করতে কাজ করছেন তারা।

জাতীয় নির্বাচনের দেড় বছর আগে অনুষ্ঠেয় এই জনসভায় আগামী নির্বাচন উপলক্ষে শেখ হাসিনা দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য দেবেন বলে মনে করেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

শুক্রবার (২৪ জুন) বিকালে শিবচরের জনসভার মঞ্চ এলাকা ঘুরে মানুষের মধ্যে উৎসবের আমেজ পরিলক্ষিত হয়েছে। এখানে পদ্মা সেতুর আদলেই তৈরি করা হয়েছে জনসভার মঞ্চ। মঞ্চের ঠিক সামনে পানিতে ভাসছে বিশাল আকৃতির একটি নৌকা। তার পাশে পদ্মা সেতুর আদলে ১১টি পিলারের ওপর ১০টি স্প্যান বসিয়ে তৈরি করা হয়েছে মঞ্চ। দেখে মনে হবে, সেতুর পাশ দিয়ে বড় একটি নৌকা চলছে। সমাবেশের দৃষ্টিনন্দন মঞ্চ তৈরিসহ সার্বিক ব্যবস্থাপনার কাজ শেষ করতে এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন কর্মীরা। পদ্মা সেতুর নিরাপত্তার মূল দায়িত্বে রয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

জেলা প্রশাসন ও আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের পর বাংলাবাজার ফেরিঘাট এলাকার জনসভায় যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ জনসভাকে স্মরণীয় করে রাখতে প্রায় ১৫ একর জমির ওপর ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে, যেখানে তৈরি করা হয়েছে ১৫০ ফুট দৈর্ঘ্য ও ৪০ ফুট প্রস্থের বিশাল মঞ্চ। নিরাপত্তার জন্য মঞ্চের ভেতরে ও বাইরে বসানো হয়েছে ছয়টি ওয়াচ টাওয়ার। এছাড়াও থাকবে দেড় শতাধিক সিসিটিভি ক্যামেরা।

প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে ঘিরে এ জনসভায় ১০ লাখ মানুষের সমাগম হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সভাস্থলে ৫০০ অস্থায়ী শৌচাগার, ভিআইপিদের জন্য আরও ২২টি শৌচাগার, সুপেয় পানির লাইন, ৪০ শয্যার তিনটি অস্থায়ী হাসপাতাল, নারীদের বসার আলাদা ব্যবস্থা এবং প্রায় দুই বর্গকিলোমিটার আয়তনের সভাস্থলে দূরের শ্রোতাদের জন্য ২৬টি এলইডি মনিটর ও ৫০০টি মাইকের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এছাড়া নদীপথে আসা মানুষের জন্য ২০টি পল্টুন তৈরি করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দিন সকালে রাজধানীর তেজগাঁওয়ের পুরনো বিমানবন্দর থেকে হেলিকপ্টারযোগে রওনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মাওয়া প্রান্তে সকাল ১০টায় সুধী সমাবেশে বক্তব্য রাখবেন। পরে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তের নামফলক উন্মোচনের মাধ্যমে পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরে টোল দিয়ে তিনি সেতু পার হবেন। জাজিরা প্রান্তে এসেও পদ্মা সেতুর নামফলক উন্মোচন করবেন।

উদ্বোধন শেষে শেখ হাসিনা মাদারীপুরের শিবচরে কাঁঠালবাড়িতে ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী ফেরি ঘাটে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসমাবেশে যোগ দেবেন।

২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচনের আগে দেশের বিভিন্ন জেলায় জনসমাবেশ অংশ নিয়েছিলেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। করোনা পরবর্তী সময়ে এবারই প্রথম ঢাকার বাইরে জনসভায় যোগ দেবেন তিনি।

শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবিদুর রহমান খোকা সিকদার বলেন, আমাদের নেত্রী জাতীয়-আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ করে দেখিয়েছেন আমরা পারি। দক্ষিণবঙ্গের ২১টি জেলার দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। এই অঞ্চলের মানুষ আমরা দীর্ঘদিন অবহেলিত ও বঞ্চিত ছিলাম। আমাদের সেই বঞ্চনা আর থাকছে না। ঘণ্টার পর ঘণ্টা ফেরির জন্য অপেক্ষার কষ্ট আর থাকছে না।

প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে মাদারীপুরবাসী প্রস্তুত উল্লেখ করে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কাজল কৃষ্ণ দে বলেন, আমাদের স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন শেষে প্রধানমন্ত্রী মাদারীপুরের শিবচরে আসবেন। জনসভায় ভাষণ দেবেন। তার আগমনকে ঘিরে দলীয় নেতাকর্মীসহ গোটা মাদারীপুরবাসীর মধ্যে খুশির জোয়ার বইছে। আমরা আশা করছি, এখানে স্মরণকালের বৃহৎ জনসভা হবে। আমরা সেভাবে প্রস্তুতিও নিয়েছি।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মুহম্মদ ফারুক খান বলেন, উদ্বোধনী অনুষ্ঠান জাঁকজমকপূর্ণ করতে আমরা সর্বাত্মক প্রস্তুতি নিয়েছি। আমরা দক্ষিণাঞ্চলের সবাই আগেভাগে এলাকায় চলে আসছি। নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে যোগ দেবো।

এক প্রশ্নের জবাবে দলের এই কেন্দ্রীয় নেতা বলেন, পদ্মা সেতু আমাদের সরকারের বড় অর্জন। দেশের জনগণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর শ্রেষ্ঠ উপহার এটি। সেতু উদ্বোধনকে কেন্দ্র করে আমরা বড় ধরনের জনসভা করবো। আর আগামী দেড় বছর পরেই দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন। কাজেই এই জনসভা থেকে অবশ্যই নেত্রী আমাদের নির্বাচনের বার্তা দেবেন। দেশবাসীর কাছে নিশ্চয়ই নৌকার জন্য ভোট চাইবেন।

মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক রহিমা খাতুন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে জনসভায় ১০ লাখ মানুষের সমাগম হবে। পানি থেকে শুরু করে তাদের সব ধরনের সুবিধা দিতে আমরা প্রস্তুতি নিয়েছি। এছাড়া সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে

আগামীকাল পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
                                  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল যানবাহন চলাচলের জন্য বহুল প্রত্যাশিত ৬.১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু উন্মুক্ত করবেন যা রাজধানী ঢাকা এবং অন্যান্য বড় শহরের সাথে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১টি জেলার সড়ক যোগাযোগে ব্যাপক অগ্রগতি বয়ে আনবে। 
সেতুটির জমকালো উদ্বোধন উপলক্ষে বিশেষ করে যোগাযোগের সরাসরি সুবিধা লাভ করবে এমন দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলোসহ সারাদেশে একটি উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে।
সকাল ১০টায় মুন্সীগঞ্জের মাওয়া পয়েন্টে পদ্মা সেতু উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী।
দেশের বৃহত্তম স্ব-অর্থায়নকৃত মেগা প্রকল্পের জমকালো উদ্বোধন উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর কর্মসূচির সময়সূচী অনুযায়ী মাওয়া পয়েন্টে সকাল ১১টায় তিনি স্মারক ডাকটিকিট, স্যুভেনির শীট, উদ্বোধনী খাম এবং বিশেষ সিলমোহর উন্মোচন করবেন। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের ফলে ১.২ থেকে ২ শতাংশ পর্যন্ত জিডিপি বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করা হচ্ছে। 
এর আগে তিনি হেলিকপ্টারযোগে সকাল ৯ টা ৩০ মিনিটে ঢাকার তেজগাঁও বিমানবন্দর থেকে মাওয়া পয়েন্টে কর্মসূচিতে যোগ দেবেন। 
সকাল ১১টা ১২ মিনিটে মাওয়া পয়েন্টে টোল পরিশোধের পর উদ্বোধনী ফলক ও ম্যুরাল-১ উন্মোচনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি সেখানে মোনাজাতেও যোগ দেবেন।
তিনি সকাল ১১টা ২৩ মিনিটে মাওয়া পয়েন্ট থেকে শরীয়তপুরের জাজিরা পয়েন্টের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবেন।
প্রধানমন্ত্রী সকাল ১১টা ৪৫ মিনিটে জাজিরা পয়েন্টে পৌঁছে সেতু ও ম্যুরাল-২ এর উদ্বোধনী ফলক উন্মোচন করবেন। সেখানে মোনাজাতেও যোগ দেবেন তিনি।
দুপুর ১২টায় মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলার কাঁঠালবাড়িতে সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত দলের জনসভায় যোগ দেবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।
প্রধানমন্ত্রী বিকেল সাড়ে ৫টায় হেলিকপ্টারে জাজিরা পয়েন্ট থেকে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা করবেন।
২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর সেতুর নির্মান কাজে ৩৭ এবং ৩৮ নম্বর পিলারে প্রথম স্প্যান বসানোর মাধ্যমে পদ্মা সেতুর অংশ দৃশ্যমান হয়।
পরে একের পর এক ৪২টি পিলারের ওপর বসানো হয় ৪১টি স্প্যান। ২০২০ সালের ১০ ডিসেম্বর শেষ ৪১তম স্প্যান স্থাপনের মাধ্যমে বহুমুখী ৬.১৫ কিলোমিটার পদ্মা সেতুর সম্পূর্ণ কাঠামো দৃশ্যমান হয়ে ওঠে।
প্রকল্পের বিবরণ অনুযায়ী, মূল সেতু নির্মাণের কাজটি করেছে চীনের ঠিকাদার কোম্পানি চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) এবং নদী শাসন করেছে চীনের সিনো হাইড্রো কর্পোরেশন। মোট ৩০, ১৯৩৩.৭ কোটি টাকা ব্যয়ে স্ব-অর্থায়নে সেতু প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হয়েছে।
মূল সেতু নির্মাণের ব্যয় ১২,১৩৩.৩৯ কোটি টাকা (৪০০ কেভি ট্রান্সমিশন লাইন টাওয়ার এবং গ্যাস লাইনের জন্য ১০০০ কোটি টাকা সহ) এবং ১৩.৮ কিলোমিটার নদী শাসন কাজের ব্যয় ৯,৪০০০.০ কোটি টাকা। 
টোল প্লাজা এবং এসএ-২ সহ ১২ কিমি অ্যাপ্রোচ রোডের নির্মাণ ব্যয় ১,৯০৭.৬৮ কোটি টাকা (২টি টোল প্লাজা, ২টি থানা ভবন এবং ৩টি পরিষেবা এলাকা সহ) যেখানে পুনর্বাসনের ব্যয় ১,৫১৫.০০ কোটি টাকা, ২৬৯৩.২৬ কোটি টাকা ব্যয়ে জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে। পরিবেশ রক্ষায় ব্যয় ১২৯০.৩ কোটি টাকা, কনসালটেন্সি ৬৭৮৩.৭ কোটি টাকা এবং অন্যান্য (বেতন, পরিবহন, সিডি ভ্যাট এবং ট্যাক্স, ফিজিক্যাল এবং প্রাইস কন্টিনজেন্সি, ইন্টারেস্ট ইত্যাদি) ১,৭৩১.১৭ টাকা। 
শরীয়তপুরের জাজিরা পয়েন্টে পদ্মা সেতুর প্রথম স্প্যান বসানো হয় ২০১৭ সালের ৭ অক্টোবর।
২০১৫ সালের ১২ ডিসেম্বর শরীয়তপুর জেলার জাজিরা পয়েন্টে নির্মাণ কাজ শুরু হয়। প্রধানমন্ত্রী নদী প্রশিক্ষণের কাজ এবং পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের মূল নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন।  
১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের পর ১৯৯৭ সালে তিনি জাপান সফর করেন। তিনি পদ্মা ও রূপসা নদীর ওপর সেতু নির্মাণের প্রস্তাব করেন। জাপান সরকার দুটি নদীর ওপর সেতু নির্মাণে সম্মত হয়। যেহেতু পদ্মা নদী একটি শক্তিশালী নদী যার প্রবল স্রোত, জাপান পদ্মা নদী জরিপ শুরু করে এবং তারা তার অনুরোধে রূপসা নদীতে নির্মাণ কাজ শুরু করে।
জাপান ২০০১ সালে পদ্মা নদীর উপর সেতু নির্মাণের সমীক্ষা প্রতিবেদন বাংলাদেশের কাছে জমা দেয়। জাপানি জরিপে মুন্সীগঞ্জের মাওয়া পয়েন্টকে পদ্মা সেতু নির্মাণের স্থান হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। 
জরিপের ভিত্তিতে প্রধানমন্ত্রী ২০০১ সালের ৪ জুলাই মুন্সীগঞ্জের মাওয়ায় আনুষ্ঠানিকভাবে পদ্মা সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।
কিন্তু ২০০১ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসতে পারেনি। ক্ষমতায় আসার পর বিএনপি-জামায়াত  জোট সরকার মাওয়া পয়েন্টে নির্মাণ কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় এবং মানিকগঞ্জের আরিচা পয়েন্টে পদ্মা সেতুর জন্য আবারও জরিপ করার জন্য জাপান সরকারকে পরামর্শ দেয়। 
দ্বিতীয়বার জরিপ করার পর জাপান মাওয়া পয়েন্টকে পদ্মা সেতু নির্মাণের স্থান হিসেবে উল্লেখ করে প্রতিবেদন জমা দেয়।
২০০৯ সালে আবার ক্ষমতায় আসার পর আওয়ামী লীগ সরকার পদ্মা সেতু নির্মাণকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকারের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে।
দায়িত্ব গ্রহণের ২২ তম দিনে, নিউজিল্যান্ড ভিত্তিক পরামর্শদাতা সংস্থা মনসেল আইকমকে পদ্মা সেতুর সম্পূর্ণ নকশা প্রস্তুত করার জন্য নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল।
সেতু প্রকল্পে শুরুতে রেলের সুবিধা ছিল না। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে রেলওয়ের সুবিধা রেখে সেতুর চূড়ান্ত নকশা প্রণয়ন করা হয়।
ডিজাইনটি ২০১০ সালের মধ্যে চূড়ান্ত করা হয়। পরের বছর জানুয়ারিতে, ডিপিপি সংশোধন করা হয়। সংশোধনের কারণে প্রকল্পের ব্যয় দাঁড়ায় ২০ হাজার ৫ শ’ ৭ কোটি টাকা। খরচ বাড়ার পেছনে বেশ কিছু কারণ ছিল। শুরুতে মূল সেতুর দৈর্ঘ্য ছিল ৫ দশমিক ৫ কিলোমিটার যা পরবর্তীতে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটারে উন্নীত হয়।
প্রথম ডিপিপিতে, সেতুর ৪১টি স্প্যানের মধ্যে তিনটির নিচে নৌযান চলাচলের জন্য জায়গা রেখে নকশা তৈরি করা হয়েছিল। পরে, ডিপিপি সংশোধন করার মাধ্যমে ৩৭টি স্প্যানের নীচে জাহাজ চলাচলের সুযোগ রাখা হয়।
সংশোধিত ডিপিপিতে অনেক ওজন বহন করার ক্ষমতাসম্পন্ন রেল সংযোগ যুক্ত করা হয়েছে। কংক্রিটের পরিবর্তে ইস্পাত বা স্টিলের অবকাঠামো যুক্ত করা হয়।
সেতু নির্মাণের পাইলিং কাজের জন্যও অনেক গভীরে কাজ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। ক্ষতিগ্রস্ত লোকদের পুনর্বাসনের খরচও বেড়েছে (জমি অধিগ্রহণের কারণে)।
২০১৬ সালে খরচ বাড়ানো হলে মূল সেতু নির্মাণ ও নদী শাসনসহ সব কাজে ঠিকাদার নিয়োগ করা হয়। এদিকে মার্কিন ডলারের বিপরীতে বাংলাদেশের মুদ্রার অবমূল্যায়ন হয়েছে ৯ টাকা। নতুন করে যুক্ত হয়েছে ১.৩ কিলোমিটার নদী শাসনের কাজ।
মূল সেতু নির্মাণ, নদী শাসন ও অ্যাপ্রোচ রোড নির্মাণে ঠিকাদার নিয়োগে যে ব্যয় ধরা হয়েছিল তা প্রায় ৮ হাজার  কোটি টাকা বেড়েছে।
এছাড়া জমি অধিগ্রহণে খরচ বেড়েছে ও ফেরি ঘাট স্থানান্তরের জন্য খরচের প্রয়োজন হয় এবং নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সেনা মোতায়েন করা হয়।
পদ্মা বহুমুখী সেতু ব্যবহারের জন্য এরই মধ্যে টোল ঘোষণা করেছে সরকার। গত ১৭ মে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের অধীন সেতু বিভাগ এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে।
প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, ৬.১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ সেতু পার হতে একটি মোটরসাইকেল ১০০ টাকা, একটি গাড়ি ও একটি জীপ ৭৫০ টাকা।
টোল চার্ট অনুযায়ী, একটি পিকআপের জন্য ১,২০০ টাকা, একটি মাইক্রোবাসের জন্য ১,৩০০ টাকা, একটি ছোট বাসের জন্য (৩১-সিটের জন্য ১,৪০০ টাকা), একটি মাঝারি আকারের বাসের জন্য ২,০০০ টাকা (৩২ আসনের  বেশি) এবং একটি বড় বাসের জন্য (তিন-অ্যাক্সেল) ২,৪০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।
এছাড়া ছোট ট্রাকের (৫ টন পর্যন্ত) জন্য ১,৬০০ টাকা, একটি মাঝারি ট্রাকের (৫-৮ টন) জন্য ২,১০০ টাকা এবং ৮-১১ টন ওজনের একটি ট্রাকের জন্য ২,৮০০ টাকা, একটি ট্রাকের (থ্রি-অ্যাক্সেল) জন্য ৫,৫০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে এবং একটি ট্রেলারের (চার-অ্যাক্সেল) জন্য ৬,০০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়।
প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয় যে চার-অ্যাক্সেল ট্রেলারের উপরে প্রতিটি এক্সেলের জন্য ৬,০০০ টাকার সঙ্গে অতিরিক্ত ১,০০০ টাকা যোগ করা হবে।
পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে বুধবার দুপুর ১২টা থেকে ২৬ জুন সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত শিমুলিয়া-মাঝিরকান্দি ও কাঁঠালবাড়ি রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকবে বলে বুধবার একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি জারি করে সরকার।
পাশাপাশি, মেয়র হানিফ ফ্লাইওভার, পোস্তগোলা ব্রিজ এবং রাজধানী ঢাকা ও পটুয়াখালী শহরের মধ্যে জাতীয় মহাসড়ক এন-৮এই সময়ে বন্ধ থাকবে।
চলাচলের জন্য জনসাধারণকে বাবুবাজার সেতু ও এর আশপাশের সড়ক ব্যবহার করতে বলা হয়েছে।

বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে রাত আটটার পর দোকান-বাজার বন্ধের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
                                  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল সারাদেশে প্রতিদিন রাত ৮টার পর দোকানপাট, শপিংমল, মার্কেট ও বিপণী বিতান বন্ধ রাখতে সংশ্লিষ্ট সকলকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেছেন।
বিশ্বব্যাপী অব্যাহত বিদ্যুত ও জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সংরক্ষণের লক্ষ্যে আজ জারি করা এক চিঠিতে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।
জননিরাপত্তা বিভাগ, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ, স্থানীয় সরকার বিভাগ, বিদ্যুৎ বিভাগ, শিল্প মন্ত্রণালয়, কল-কারখানা পরিদর্শন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, সমস্ত বিভাগীয় কমিশনার, সমস্ত রেঞ্জের মতো সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সচিবগণ। পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শক, সকল জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারকে বাংলাদেশ শ্রম আইন-২০০৬ এর ১১৪ ধারা অনুযায়ী কঠোরভাবে আদেশ কার্যকর করার জন্য বলা হয়েছে।

‘বন্যা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন প্রধানমন্ত্রী’
                                  

সার্বিকভাবে সিলেট ও সুনামগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতি প্রধানমন্ত্রী নিজে পর্যবেক্ষণ করছেন বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

 শনিবার (১৮ জুন) নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাসে প্রতিমন্ত্রী এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘ভয়াবহ বন্যার কারণে সুনামগঞ্জ ও সিলেটের ঝুঁকিপূর্ণ এলাকাগুলোতে বিদ্যুৎ সরবরাহ সাময়িক বন্ধ রাখতে হচ্ছে আমাদের। দুর্যোগকালীন টিম গঠন করে আমরা সার্বক্ষণিক পরিস্থিতি মনিটর করছি। বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোর ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।’

‘সার্বিকভাবে সিলেট ও সুনামগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতি নিজে পর্যবেক্ষণ করছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী’।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বন্যার্তদের জন্য ইতোমধ্যে ৬০০ আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। দুই জেলার ৮ উপজেলায় স্থানীয় প্রশাসনের পাশাপাশি সেনাবাহিনীর ১০ প্লাটুন এবং ৬টি মেডিকেল টিম পানিবন্দি মানুষকে উদ্ধার, আশ্রয়কেন্দ্র স্থাপন, আক্রান্তদের চিকিৎসা, বিশুদ্ধ খাবার পানি ও খাদ্য সামগ্রী প্রদান এবং স্পর্শকাতর স্থাপনার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করছে।’

নসরুল হামিদ বলেন, ‘সবার সহযোগিতায় সিলেট ও সুনামগঞ্জের দুর্গত মানুষ দ্রুত পরিত্রাণ পাক এই কামনা।’

বুধবার (১৫ জুন) থেকে সিলেটের নিচু এলাকায় পানি জমে। তবে বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে তা ভয়াবহ রূপ নেয়। দুপুর ১২টা থেকে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতের মধ্যেই সিলেট নগরের বেশির ভাগ এলাকা তলিয়ে যায় বন্যার পানিতে।

২৪ ঘণ্টার মধ্যেই সিলেটে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের পানি বাসা-বাড়ি ভাসিয়ে নিয়েছে। একদিনে বন্যার এমন ভয়াবহ রূপ আগে দেখেনি সিলেটের মানুষ। বন্যার পানির এমন আকস্মিক বৃদ্ধিতে হতভম্ব ক্ষতিগ্রস্ত লাখ লাখ মানুষ। অবাক হয়েছেন সিলেট সিটি করপোরেশনসহ স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারাও।

ভয়াবহ বন্যার শিকার লোকজন আশ্রয়কেন্দ্রে গিয়েও জায়গা পাচ্ছেন না। শুকনো খাবার ও বিশুদ্ধ পানির সংকটে রয়েছেন সিলেটের বানভাসি মানুষ। এছাড়া জেলার কৃষকরা তাদের গৃহপালিত পশু নিয়ে পড়েছেন বিপাকে। এমন পরিস্থিতিতে সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো মানবিক সংকট মোকাবিলায় সবাইকে সাধ্য অনুযায়ী এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছে।

এদিকে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সুনামগঞ্জেও দুদিন ধরে ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। পাহাড়ি ঢলের পানিতে তলিয়ে গেছে সুনামগঞ্জের ১২টি উপজেলা। ফলে পানিবন্দি হয়ে পড়েছে ৪ লাখেরও বেশি মানুষ।

এরই মধ্যে পুরো সুনামগঞ্জ শহর বন্যার পানিতে ডুবে গেছে। আশ্রয়কেন্দ্রে যাওয়ার মতো সুযোগও নেই শহরবাসীর। ফলে পানিবন্দি অবস্থায় না খেয়েই দিন পার করছেন লাখো মানুষ। অনেকে ছোট নৌকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আশ্রয়কেন্দ্রে যাচ্ছেন।

সারাদেশে এসএসসি পরীক্ষা স্থগিত
                                  

বন্যা পরিস্থিতির কারণে আগামী ১৯ জুন থেকে শুরু হতে যাওয়া সারাদেশের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। পরীক্ষার পরিবর্তী সময়সূচি পরে জানানো হবে। গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের।

শিক্ষামন্ত্রীর দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে, দেশের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় আগামী ১৯ জুন ২০২২ তারিখে অনুষ্ঠিতব্য সকল শিক্ষা বোর্ডের এসএসসি জেনারেল, এসএসসি ভোকেশনাল এবং দাখিল পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। পরীক্ষার পরিবর্তিত সময়সূচী পরে জানানো হবে।

সীতাকুন্ডে অগ্নিকান্ডে হতাহতের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর শোক
                                  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকান্ডে হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন ।
প্রধানমন্ত্রী আজ এক শোক বার্তায় নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। তিনি আহতদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা প্রদানের জন্য নির্দেশনা দেন।
প্রধানমন্ত্রী দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণে এনে উদ্ধার তৎপরতা পরিচালনা এবং ক্ষতিগ্রস্তদের সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদানে সরকারের পাশাপাশি দলীয় নেতাকর্মীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।সুত্রঃবাসস


   Page 1 of 137
     জাতীয়
চলতি সপ্তাহেই শুরু হচ্ছে শিশুদের টিকাদান
.............................................................................................
ই-নামজারিতে স্বাক্ষরবিহীন কিউআর কোডযুক্ত ডিসিআর ও খতিয়ান চালু
.............................................................................................
চট্টগ্রামে ট্রেন-মাইক্রোবাসের সংঘর্ষ, নিহত ১১
.............................................................................................
করোনায় আরও একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৫৫
.............................................................................................
কটিয়াদীতে ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল, তিন ঘণ্টা পর চলাচল স্বাভাবিক
.............................................................................................
স্থগিত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু ১৫ সেপ্টেম্বর
.............................................................................................
শেখ হাসিনার সুকৌশলী নেতৃত্বে সারাদেশেই উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে : স্পিকার
.............................................................................................
পদ্মা সেতুতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে হাস্যোজ্জ্বল জয়-পুতুল
.............................................................................................
ঈদে বাড়ি ফিরতে ১২ নির্দেশনা মানার পরামর্শ ডিএমপির
.............................................................................................
পদ্মা সেতুতে ৮ ঘণ্টায় টোল আদায় ৮২ লাখ
.............................................................................................
প্রতীক্ষার প্রহর শেষ, রাত পোহালেই খুলছে স্বপ্ন দুয়ার
.............................................................................................
আগামীকাল পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে রাত আটটার পর দোকান-বাজার বন্ধের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
.............................................................................................
‘বন্যা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন প্রধানমন্ত্রী’
.............................................................................................
সারাদেশে এসএসসি পরীক্ষা স্থগিত
.............................................................................................
সীতাকুন্ডে অগ্নিকান্ডে হতাহতের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর শোক
.............................................................................................
হজের প্রথম ফ্লাইট রবিবার, যাচ্ছেন ৪১৫ যাত্রী
.............................................................................................
জাতির বহুল প্রত্যাশিত পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে জ্বালানো হলো স্ট্রিট লাইট
.............................................................................................
একাদশ জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ (বাজেট) অধিবেশন শুরু আগামীকাল
.............................................................................................
দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতেই নিজস্ব অর্থে পদ্মা সেতু নির্মাণ করেছি : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর মাজারে ফাতেহা পাঠ করলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
সরকারের প্রধান অগ্রাধিকার হচ্ছে দেশের সার্বিক উন্নয়ন নিশ্চিত করা : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
১ জুন থেকে চালু হচ্ছে ‘মিতালী এক্সপ্রেস’ ট্রেন
.............................................................................................
জাপান ও ওইসিডির দেশগুলোর সহযোগিতা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
ভবিষ্যৎ মহামারী মোকাবেলায় বৈশ্বিক চুক্তিতে পৌঁছার জন্য প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান
.............................................................................................
ফিলিস্তিনে সাংবাদিক শিরিন হত্যাকান্ডের নিন্দায় বাংলাদেশ
.............................................................................................
শিশুদের খেলাধূলায় উৎসাহিত করুন : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
একনেকে ৫ হাজার ৮২৫.৭৪ কোটি টাকার ১১টি প্রকল্প অনুমোদন
.............................................................................................
ওয়াজেদ মিয়ার আজ ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী
.............................................................................................
টিকিট ছাড়া ভ্রমণ করা যাত্রীরা আমার আত্মীয় নন: রেলমন্ত্রী
.............................................................................................
আওয়ামী লীগ সব সময় ভোটের মাধ্যমেই রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় এসেছে, পেছনের দরজা দিয়ে নয় : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
আবারও বাড়ল সয়াবিন তেলের দাম
.............................................................................................
ঈদের ছুটি শেষে অফিস খুলছে আগামীকাল
.............................................................................................
বনানীতে স্বজনদের কবর জিয়ারত করলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
প্রীতির পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর ২০ লাখ টাকা অনুদান
.............................................................................................
আগামীকাল পবিত্র ঈদুল ফিতর
.............................................................................................
বিশ্বের সব মুসলমানকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আর নেই
.............................................................................................
কুসিক নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা
.............................................................................................
৪০টি নতুন ফায়ার স্টেশন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পর্যায়কে সম্পৃক্ত করে অটিজম নিয়ে দেশে জাতীয় সচেতনতা তৈরি করা গেছে : সায়মা ওয়াজেদ হোসেন
.............................................................................................
বিপু বড়ুয়ার মৃত্যুতে তথ্যমন্ত্রীর শোক
.............................................................................................
আগামী ২০২৪ সালের মধ্যেই বঙ্গবন্ধু রেল সেতুর নির্মাণকাজ শেষ হবে
.............................................................................................
সামরিক স্বৈরশাসক জিয়া ও এরশাদ নিজেদের অবৈধ ক্ষমতাকে বৈধতা দিতেই দল গঠন করেন : জয়
.............................................................................................
অববাহিকা ভিত্তিক আন্তঃসীমান্ত নদীর পানি ব্যবস্থাপনার ওপর প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বারোপ
.............................................................................................
প্রশ্নফাঁসের তথ্যকে গুজব বললেন প্রতিমন্ত্রী
.............................................................................................
সনাতনী ওষুধ ব্যবহারে গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রীর সময়োচিত সিদ্ধান্তেই দেশের অর্থনীতি গতিশীল রয়েছে : স্পিকার
.............................................................................................
মেগা প্রকল্পগুলো সম্পন্ন হলে দেশের অর্থনীতি বদলে যাবে : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
ধর্মের সাথে সংস্কৃতির কোন বিরোধ নেই : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: আবদুল মালেক, সুগ্ম সম্পাদক: মো: জাহাঙ্গীর আলম শাহ। সম্পাদক কর্তৃক ২৪৪ (২য় তলা), ৪নং জাতীয় স্টেডিয়াম, কমলাপুর, ঢাকা-১২১৪
থেকে প্রকাশিত এবং স্যানমিক প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজেস, ৫২/২, টয়েনবি সার্কুলার রোড, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত।
মোবাইল: ০১৮৪১৭৪৯৮২৪, ০১৮৪১৭৪৯৮২৫ ই-মেইল: ই-মেইল: noboalo24@gmail.com,
bmengineering77@gmail.com, ওয়েবসাইট www.dailynoboalo.com


   All Right Reserved By www.dailynoboalo.com Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop    
Dynamic SOlution IT Dynamic POS | Super Shop | Dealer Ship | Show Room Software | Trading Software | Inventory Management Software Computer | Mobile | Electronics Item Software Accounts,HR & Payroll Software Hospital | Clinic Management Software Dynamic Scale BD Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale Digital Load Cell Digital Indicator Digital Score Board Junction Box | Chequer Plate | Girder Digital Scale | Digital Floor Scale