বাংলার জন্য ক্লিক করুন
   বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর 2020 | ,২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৭
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   রাজনীতি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
এবার ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ করোনায় আক্রান্ত

এলজিআরডি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও ফরিদপুরের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। শুক্রবার দুপুরে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, অন্যদের পরামর্শে করোনা পরীক্ষা করিয়েছিলেন ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন। পরে ডাক্তাররা বলেছেন করোনা পজিটিভ। বর্তমানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাসাতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি।

এবার ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ করোনায় আক্রান্ত
                                  

এলজিআরডি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও ফরিদপুরের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। শুক্রবার দুপুরে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, অন্যদের পরামর্শে করোনা পরীক্ষা করিয়েছিলেন ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন। পরে ডাক্তাররা বলেছেন করোনা পজিটিভ। বর্তমানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাসাতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি।

সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন আইসিইউতে
                                  

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুনকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়েছে।

শুক্রবার সকালে সাহারা খাতুনের ব্যক্তিগত সহকারী মুজিবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় আজ সকালে তাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়েছে।

মুজিবুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার রাত ১২টায় চিকিৎসকদের মেডিকেল বোর্ড বৈঠক করেন। তখন হাসপাতালের এসডিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন সাহারা খাতুন।

এর আগে শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় গত ২ জুন দিবাগত রাতে তাকে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। করোনা পরীক্ষা করে নেগেটিভ রিপোর্ট এসেছে।

সাহারা খাতুন গত তিন মেয়াদ ধরে ঢাকা-১৮ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য। ২০০৮ সালে মহাজোট ক্ষমতায় আসলে প্রথমে তাকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী করা হয়। পরে সেখান থেকে পাঠানো হয় ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে। তিনি একজন প্রবীণ আইনজীবীও।

করোনায় মারা গেলেন সাবেক এমপি হাজী মকবুল
                                  

আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য (এমপি) হাজী মকবুল হোসেন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার রাত ৯টার দিকে তিনি মারা যান।

হাজী মকবুল হোসেনের ব্যক্তিগত সহকারী ফজলুর রহমান মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘উনার করোনাভাইরাস পজিটিভ এসেছিল। তিন দিন আগে তিনি সিএমএইচে ভর্তি হন।’

তিনি জানান, করোনাভাইরাস সংকটের মধ্যেই মুন্সীগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থানে ত্রাণ বিতরণ করে যাচ্ছিলেন মকবুল। সর্বশেষ গত ১৪ মে তিনি মোহাম্মদপুরের বাসায় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের হাতে আর্থিক অনুদান তুলে দেন। এরপর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।

তার স্ত্রীও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে শমরিতা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বলে ফজলুর জানান।

প্রসঙ্গত, মকবুল হোসেন ১৯৯৬-২০০১ মেয়াদে ধানমন্ডি-মোহাম্মদপুর আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ছিলেন।

শমরিতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালটির মালিক মকবুল। তিনি একাধিক ইন্সুরেন্স কোম্পানিরও মালিক। সিটি ইউনিভার্সিটিতে মালিকানার পাশাপাশি মোহাম্মদপুরে নিজের নামে কলেজও রয়েছে তার।

তার ছেলে আহসানুল ইসলাম টিটু টাঙ্গাইল-৬ আসনে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য।

সাঈদীর পুত্রের সাথে গোপন বৈঠক, সেই যুবলীগ নেতা বহিষ্কার
                                  

চট্টগ্রাম নগরীতে অস্ত্রসহ র‌্যাবের হাতে আলোচিত রকি বড়ুয়ার সাথে আটক লোহাগাড়া উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য, রকি বড়ুয়ার সহযোগী শফিউল আজম শহীদকে লোহাগাড়া উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটি থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বুধবার রাতে লোহাগাড়া উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক জহির উদ্দিন, যুগ্ম আহ্বায়ক ফজলে এলাহী আরজু, আবদুল হান্নান মোহাম্মদ ফারুক স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, লোহাগাড়া উপজেলা যুবলীগের এক জরুরি সিদ্ধান্ত মোতাবেক দক্ষিণ জেলা যুবলীগের নির্দেশক্রমে জানানো যাচ্ছে, লোহাগাড়া উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য শফিউল আজম শহীদ যুদ্ধাপরাধে সাজাপ্রাপ্ত আসামি সাঈদীর পুত্রের সাথে গোপন বৈঠক, সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা সৃষ্টি, রাষ্ট্রবিরোধী কার্যকলাপে লিপ্ত হওয়ায়, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সংগঠন পরিপন্থী কাজ করায় লোহাগাড়া উপজেলা আওয়ামী যুলীগের সদস্য পদ থেকে বহিষ্কার ঘোষণা করা হলো। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত শহীদের কোনো কার্যকলাপ দায়ভার যুবলীগ নেবে না। 

এদিকে, র‌্যাব-৭ মঙ্গলবার রাতে নগরের পাঁচলাইশ থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে রকি বড়ুয়া ও সফিউল আজম শহীদসহ সাতজনকে আটক করে। তাদের নামে নগরীর পাঁচলাইশ থানা ও লোহাগাড়া থানায় মামলা হয়েছে।

১৬ কোটি মানুষকেই ইন্টারনেট সেবার আওতায় আনবো: জয়
                                  

সাতটি কলেজে ওয়াইফাই সংযোগ কার্যক্রম উদ্বোধন করেছেন জয়।

 

ঢাকা: দেশের ১৬ কোটি মানুষকে ইন্টারনেট সেবার আওতায় আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

রোববার (১২ জানুয়ারি) সচিবালয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ প্রতিশ্রুতি দেন।

সজীব ওয়াজেদ বলেন, ‘ডিজিটাল বাংলাদেশে সবার দাবি সব জায়গায় ওয়াইফাই জোন করে দেওয়ার। বিশেষ করে আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের। সে কারণেই আমরা এই প্রকল্প হাতে নিয়েছিলাম। ডিজিটাল বাংলাদেশের যাত্রা যখন শুরু করি, তখন অনলাইন তো দূরের কথা, ইন্টারনেট কানেকশনেরই অভাব ছিল। মাত্র ১ দশমিক ৩ শতাংশ মানুষ ইন্টারনেট সুবিধা পেত। এখন সেটা প্রায় ৬০ শতাংশে চলে এসেছে। আমরা গত ১০ বছরে ১০ কোটির বেশি মানুষকে অনলাইনে এনেছি।’

এদিন দেশের সব সরকারি কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় ও ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে অপটিক্যাল ফাইবার নেটওয়ার্ক স্থাপন শীর্ষক প্রকল্পের আওতাধীন সাতটি কলেজে ওয়াইফাই সংযোগ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন জয়। 

তিনি বলেন, ‘আমাদের তরুণদের দাবি, সব জায়গা তাদের ওয়াইফাই করে দেওয়া। সেটা কিন্তু আমাদের আওয়ামী লীগ সরকার করে যাচ্ছে। এই প্রকল্প হলো সেটারই অংশ। এই কাজ চলমান থাকবে। সারাদেশেই আমরা ইন্টারনেট আনছি, ইউনিয়ন পর্যন্ত আমরা ফাইবার নিয়ে যাচ্ছি।’

প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা বলেন, ‘আমার স্বপ্ন হচ্ছে দেশের সকল ১৬ কোটি মানুষকেই আমরা অনলাইনে আনবো। এটা হচ্ছে আমাদের ওয়াদা।’

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, সচিব নূর-উর-রহমানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে ডাক ও টেলিযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার দায়িত্ব গ্রহণের পর ‘ইনস্টলেশন অব অপটিক্যাল ফাইভার ক্যাবল নেটওয়ার্ক অ্যাট গভর্মেন্ট কলেজ, ইউনিভার্সিটি অ্যান্ড ট্রেনিং ইনস্টিটিউট’ শীর্ষক প্রকল্পটি গৃহীত হয়। ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অধীন বিটিসিএল প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে।

প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে ৫৮৭টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা ওয়াইফাইয়ের মাধ্যমে ব্রডব্যান্ড (উচ্চগতি) ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন। পর্যায়ক্রমে বেসরকারি কলেজ ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এবং এরপর স্কুলসহ অন্য সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেও ওয়াইফাই চালু করা হবে।

প্রথম এক বছর সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ১০ এমবিপিএস বা প্রয়োজনমতো বিনামূল্যে ব্যান্ডউইথ সরবরাহ করা হবে। চলতি বছরের জুনের মধ্যে প্রকল্পটির বাস্তবায়ন শেষ হবে। প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ৪৫ কোটি টাকা।

৫৮৭টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৪৩, ময়মনসিংহ বিভাগে ৩৫, চট্টগ্রাম বিভাগে ১০৭, বরিশাল বিভাগে ৪৫, খুলনা বিভাগে ৮৩, রাজশাহী বিভাগে ৮৫, রংপুর বিভাগে ৫৬ ও সিলেট বিভাগের ৩৩টি প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলায় দর্শনার্থীদের জন্য শাটল বাস
                                  

ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা-২০২০ এর লোগো

 

ঢাকা: আগামী ১৬ জানুয়ারি দেশে প্রথমবারের মতো শুরু হতে যাচ্ছে তিন দিনব্যাপী ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) অনুষ্ঠেয় এ মেলায় যাওয়া-আসার সুবিধার্থে দর্শনার্থীদের জন্য শাটল বাস সার্ভিস চালু করছে মেলা কর্তৃপক্ষ।

প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় এ দিন সকাল ১০টায় মেলাটির উদ্বোধন করবেন বলে বুধবার (১৫ জানুয়ারি) বিআইসিসিতে সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

মেলার টাইটেনিয়াম সহযোগী হুয়াওয়ে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, মেলায় প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের সাধারণ মানুষকে ৫-জি অভিজ্ঞতা দিতে যাচ্ছে হুয়াওয়ে। যা মেলার মূল আকর্ষণ। এছাড়াও নতুন নতুন প্রযুক্তির চমকপ্রদ নানা অভিজ্ঞতা অর্জনের সুযোগ থাকছে। সে সব অভিজ্ঞতা অর্জনে আগ্রহী দর্শনাথীদের সুবিধার্থেই রাজধানীর পাঁচটি রুটে এই শাটল বাস সার্ভিস চালু করা হচ্ছে।

ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রতিদিন সকাল ১০টা ও দুপুর ১টায় বাসগুলো মেলার উদ্দেশে ছেড়ে আসবে। মেলা শেষে রাত ৮টায় দর্শনার্থীদের নিয়ে বাসগুলো আবার নিজ নিজ রুটে ফিরে যাবে।

মেলার শাটল বাস সার্ভিসের রুটগুলো যথাক্রমে উত্তরা, মালিবাগ, মতিঝিল, আজিমপুর ও মিরপুর।

উত্তরা রুটে প্রতিদিন সকাল ১০টা ও দুপুর ১টায় বাস ছাড়া হবে আবদুল্লাহপুর থেকে। এরপর জসিমুদ্দীন, এয়ারপোর্ট, কুড়িল বিশ্বরোড ও মহাখালী হয়ে বাসটি মেলার ভেন্যু বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে পৌঁছাবে।

মালিবাগ রুটে মালিবাগ থেকে ছেড়ে রামপুরা, বনশ্রী, নতুন বাজার ও যমুনা ফিউচার পার্ক হয়ে বাসগুলো মেলা কেন্দ্রে আসবে।

একইভাবে মতিঝিল শাপলা চত্বর থেকে ছেড়ে দৈনিক বাংলা মোড়, জিরো পয়েন্ট, বিটিআরসি, বিটিসিএল, ফার্মগেট হয়ে শাটল বাস মেলাস্থলে আসবে।

আজিমপুর রুটে নিউ মার্কেট, সাইন্সল্যাব, জিগাতলা, শংকর, ধানমণ্ডি-২৭ ঘুরে বাস আসবে মেলাকেন্দ্রে।

মিরপুর রুটে বাস ছাড়া হবে মিরপুর-১২ থেকে। এরপর মিরপুর-৬, ঢাকা কমার্স কলেজ, সনি সিনেমা হল ও কাজীপাড়া হয়ে বাসটি মেলার ভেন্যু বিআইসসিতে পৌঁছাবে।

মেলায় আগত দর্শনার্থীরা হুয়াওয়ের প্যাভিলিয়নে সরাসরি ৫-জি স্পিড ও লো- ল্যাটেন্সি অভিজ্ঞতা নিতে পারবেন। এছাড়া আকর্ষণ হিসেবে আনা হয়েছে বিশেষ একটি রোবট। যাকে হাতের ইশারায় পরিচালনা করে খেলা যাবে ফুটবল।

পাশাপাশি আরও একটি প্লে-জোন থাকবে, যেখানে সবাই ৫-জি প্রযুক্তির মাধ্যমে রিয়েল-টাইম ভি-আর উপভোগ করতে পারবেন। ৫-জি ভি-আর পরার সঙ্গে সঙ্গে অংশগ্রহণকারী নিজেকে খুঁজে পাবেন স্কিইরত অবস্থায়।

উন্নত প্রযুক্তি এবং অডিও কিংবা ভার্চুয়াল রিয়েলিটির সরাসরি অভিজ্ঞতা দিতেই হুয়াওয়ের এই আয়োজন।

বড় ভাইকে অভিনন্দন জানালেন তাপস
                                  

আওয়ামী যুবলীগের নতুন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন শেখ ফজলে শামস পরশ। বড় ভাই শেখ ফজলে শামস পরশ নির্বাচিত হওয়ায় শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন ছোট ভাই সংসদ সদস্য শেখ ফজলে নূর তাপস। ক্যাসিনো কেলেঙ্কারিতে ভাবমূর্তি সঙ্কটে থাকা যুবলীগের অনুষ্ঠিত কংগ্রেসে পরশ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

তার বাবা শেখ ফজলুল হক মণির হাত ধরেই গড়ে উঠেছে এই সংগঠন। সঙ্কটে পড়া সংগঠনকে নতুনভাবে সাজাতেই তার হাতে এই দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। আগামী তিন বছর যুবলীগের নেতৃত্ব দেবেন তিনি।

শেখ ফজলে শামস পরশ ও শেখ ফজলে নূর তাপস জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতি ও যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনির দুই ছেলে।

ক্যাসিনো কাণ্ডে যুবলীগ নেতাদের জড়িত থাকায় দেশজুড়ে তুমুল আলোচনার মধ্যে সংগঠনটিকে ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নেয়া হয়। দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয় চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীকে। গতকালের কাউন্সিলেও তাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। এরপর থেকে বলা হচ্ছিল স্বচ্ছ ইমেজের কাউকে দায়িত্ব দেয়া হবে সংগঠনটির। প্রয়োজনে রাজনীতির বাইরের কেউ আসতে পারেন দায়িত্বে।

যুবলীগের সপ্তম কংগ্রেসের কার্যক্রম শুরুর পর থেকেই ঘুরে ফিরে শেখ ফজলে শামস পরশের নাম আসছিল। দলীয় সূত্র জানায়, যুবলীগের দায়িত্ব নিতে পরশকে শীর্ষ পর্যায় থেকে বলা হলেও তিনি শুরুতে আগ্রহী ছিলেন না। ফুফু শেখ হাসিনার সঙ্গে একান্ত আলোচনার পর তিনি রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

উল্লেখ্য, ক্যাসিনো বাণিজ্য, টেন্ডার বাণিজ্যসহ নানা অভিযোগের মধ্যেই বাংলাদেশ আআওয়ামী যুবলীগের এই কংগ্রেস অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এই কংগ্রেসের আগেই ওমর ফারুক চৌধুরীকে চেয়ারম্যানের পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। এই বিতর্কে শুধু সাবেক চেয়ারম্যান না, অতীতের নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধেও নানা অভিযোগ উঠেছে। এই প্রেক্ষাপটে যিবলীগকে নিষ্কলুষ করতে এবং বিতর্কমুক্ত কংগ্রেস করতেই অতীতের কোনো কেন্দ্রীয় নেতাকে মঞ্চে ডাকা হয়নি বলেই যুবলীগ সূত্রে জানা গেছে।

শেখ ফজলুল হক মনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাগ্নে এবং বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অন্যতম প্রধান গেরিলা বাহিনী মুজিব বাহিনী তার নির্দেশে ও প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে গঠিত এবং পরিচালিত হয়। শেখ ফজলে শামস পরশ শেখ ফজলুল হক মনির বড় ছেলে। পরশ যে যুবলীগের দায়িত্ব পাচ্ছেন তা আগে থেকেই জানা গিয়েছিল। চেয়ারম্যান পদে সবচেয়ে বেশি আলোচনায় ছিল সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা শেখ ফজলুল হক মনির ছেলে শেখ ফজলে শামস পরশের নাম।

সূত্রগুলো বলছে, যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বঙ্গবন্ধুর ভাগ্নে শেখ ফজলুল হক মনির গড়া সংগঠন যুবলীগের ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধার করতে তাই পরশের ওপর ভরসা রেখেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

যুবলীগের চেয়ারম্যান পরশ, সম্পাদক নিখিল
                                  

যুবলীগের সপ্তম জাতীয় সম্মেলনে সংগঠনটির নতুন চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচন করা হয়েছে। সংগঠনটির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন শেখ ফজলে শামস পরশ। তিনি সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনির বড় ছেলে।

অপরদিকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন মাঈনুল হোসেন খান নিখিল। তিনি ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছিলেন।

শনিবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শেখ ফজলে শামস পরশ ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তার ছোট ভাই শেখ ফজলে নূর তাপস ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি)। সাম্প্রতিক ক্যাসিনো বিরোধী অভিযানে যুবলীগের অনেক শীর্ষ নেতা বিতর্কিত হয়ে যাওয়ায় ক্লিন ইমেজের নেতা খুঁজতে থাকে আওয়ামী লীগ। এবার প্রথম থেকেই শেখ ফজলে শামস পরশ চেয়ারম্যান পদে আলোচনায় ছিলেন।

যুবলীগের নতুন চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণার সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবউল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল হক, আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, উপদপ্তর সম্পাদক বিল্পব বড়ুয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে যুবলীগের সপ্তম জাতীয় কংগ্রেস আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার সকাল ১১টায় রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে কংগ্রেসের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

সংসদে যাব না, ওই সিদ্ধান্তটা ভুল ছিল : ফখরুল
                                  

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সংসদে যাওয়ার ব্যাপারে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যখন আমরা বলেছিলাম সংসদে যাব না। ওই সিদ্ধান্তটা ভুল ছিল। আমাদের পার্লামেন্টেও লড়াই করতে হবে। বাইরেও লড়াই করতে হবে।

রোববার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে সাবেক বিএনপি নেতা নাসির উদ্দিন আহম্মেদ পিন্টুর ৪র্থ স্মরণ সভায় তিনি এ কথা বলেন।

ফখরুল বলেন, সস্তা স্লোগান না দিয়ে আমাদের পথ বের করতে হবে। আমরা বসে থাকব না। পথ খুঁজব। দেশে সুশাসন নেই। বিচার বিভাগসহ গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলো ধ্বংস করে ফেলা হয়েছে। এ থেকে মুক্তি পেতে হবে।

সরকার খালেদা জিয়াকে জামিন দিতে ভয় পায় উল্লেখ করে তিনি বলেন, দেশনেত্রীকে মুক্তি দিলে হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালার মতো তার পেছনে মানুষ ছুটে আসবে। তাই সরকার শঙ্কায় আছে।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা দরকার। কারারুদ্ধ অবস্থায় তার স্বাস্থ্যের কিছু হলে এর দায়দায়িত্ব সরকারকে নিতে হবে।

প্রয়াত নাসির উদ্দিন আহম্মেদ পিন্টু সম্পর্কে তিনি বলেন, তিনি দলের লড়াকু সৈনিক ছিলেন। সেজন্য তাকে টার্গেট করে অত্যন্ত পরিকল্পিতভাবে কারাগারে হত্যা করা হয়েছে। আরাফাত রহমান কোকোর মৃত্যুর পরে জেলখানায় তার নামে মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করাই তার জন্য কাল হলো।

সভায় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা ইয়াসিন আলী, আক্তারুজ্জামান বাচ্চু প্রমুখ ব্ক্তব্য রাখেন।

৫ শর্তে ঈদের আগেই মুক্তি পাচ্ছেন খালেদা জিয়া!
                                  

বিএনপি মুখে যতই বলুক সরকারের সঙ্গে কোন সমঝোতা নয়, কিন্তু নাটকীয়ভাবে ৫ জন সংসদ সদস্যর শপথ গ্রহণ এবং সরকারের পক্ষ থেকে তাদের স্বাগত জানানোর মধ্য দিয়ে খালেদা জিয়ার মুক্তির পথ উম্মোচিত হলো কিনা সেই আলোচনা এখন রাজনীতিতে এসে গেছে।

অনেক রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহল বলছেন, এটার ফলে খালেদা জিয়ার মুক্তির পথ উম্মুক্ত হলো। বিএনপিরও অনেকেই মনে করছেন, খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্যই হয়তো বিএনপি এমন আত্মঘাতি এবং অসম্মানজনক সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

কিন্তু খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিএনপি চেয়ারপারসনের মুক্তির ব্যাপারে সরকার এবং বিএনপির মধ্যে তেমন কোন সমঝোতা হয়নি। বরং খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আরো নতুন ৫টি মামলার চার্জশিটের প্রস্তুতি চলছে বলে সরকারের বিভিন্ন সূত্রগুলো বলছে।

আইনজীবীরা বলছেন, খালেদা জিয়া প্যারোল নেয়ার ব্যাপারে এখনো সম্মতি জানাননি। তিনি যদি প্যারোল না গ্রহণ করেন, সেক্ষেত্রে তার মুক্তির একমাত্র উপায় হলো জামিনের মাধ্যমে। কিন্তু খালেদা জিয়া কি জামিনের আবেদন করবেন? তিনি যদি জামিনের আবেদনও না করেন, সেক্ষেত্রে তার মুক্তি কোন প্রক্রিয়ায় হবে সেটা রাজনৈতিক অঙ্গনে এক গোলক ধাধা।

তবে বিএনপির একজন শীর্ষস্থানীয় নেতা বলেছেন, খালেদা জিয়ার মুক্তির সঙ্গে বিএনপির পাঁচজন সংসদ সদস্যর শপথ নেয়ার কোন সম্পর্ক নেই। বরং এর সঙ্গে তারেক রহমানের লন্ডনে থাকা এবং তার বিরুদ্ধে সরকারের বিভিন্ন ব্যবস্থাগুলোকে শ্লথ করে দেয়ার অভিযোগ আছে।

এর মাধ্যমে তারেক রহমানের লন্ডনে থাকা নিশ্চিতও হয়েছে বলে অনেকে মনে করেন। সরকার তারেককে ফিরিয়ে আনার কঠোর সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে বলেও একটি সূত্র দাবি করেছে।

তাহলে প্রশ্ন হলো, খালেদা জিয়া মুক্তি পাবেন কীভাবে? বিএনপির একাধিক সূত্র বলছে যে, খালেদা জিয়া এবং তারেক রহমান দুজনই ভিন্ন ভিন্নভাবে সরকারের সঙ্গে দরকষাকষি করছেন। খালেদা জিয়ার ছোটভাই শামীম ইস্কান্দার সরকারের একাধিক প্রভাবশালী মহলের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। এই যোগাযোগ সফল হলেই খালেদা জিয়া মুক্তি পাবেন বলে জানা গেছে।

এদিকে সরকারের একাধিক সূত্র বলছে, খালেদা জিয়ার মুক্তির আগে বিএনপিকে ঢেলে সাজাতে হবে। সেই লক্ষ্যে সরকারের পক্ষ থেকে পাঁচটি সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

এর মধ্যে রয়েছে-

১. জাতির পিতাকে বিএনপির আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দিতে হবে। বিএনপির গঠনতন্ত্রে জাতির পিতার বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।

২. বিএনপিকে ১৫ আগস্ট শোক দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দিতে হবে। ১৫ আগস্টে শোক দিবসের রাষ্ট্রীয় কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করতে হবে।

৩. জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীতে সরকারের পক্ষ থেকে যে বছরব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে সেই অনুষ্ঠানে বিএনপিকেও শামিল হতে হবে।

৪. খালেদা জিয়া জামিন বা প্যারোল যেটাই পান না কেনো সেটি নিয়ে তিনি বিদেশে যাবেন না, বিদেশে গেলেও তিনি স্বল্পকালীন সময়ের জন্য যাবেন।

৫. বিএনপির বিরুদ্ধে সন্ত্রাস সহিংসতার যে মামলাগুলো রয়েছে সেগুলো অব্যাহতভাবে চলবে।

তবে এই বিষয়ে সরকার এবং বিএনপির মধ্যে এখনও আলোচনা ও সমঝোতার চেষ্টা চলছে বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে। এই সমঝোতা প্রক্রিয়া যদি সফল হয় তবে জামিন বা প্যারোল হোক খালেদা জিয়া মুক্তি পেতেই পারেন।

এদিকে একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, বেগম জিয়া মুক্তি পান বা না পান খুব শীঘ্রই হয়তো তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ইউনাইটেড হাসপাতালে স্থানান্তর করা হতে পারে। এই ব্যাপারে একটি আবেদন আগামীকাল বা রোববারের মধ্যে সরকারের কাছে নতুন করে দেয়া হতে পারে। সূত্র-সোনালীনিউজ।

‘দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে শপথ নিয়েছি’
                                  

বহিষ্কারের কথা জেনেই দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে শপথ নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেওয়া বিএনপির জাহিদুর রহমান জাহিদ।

গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিএনপির ভরাডুবির মধ্যেও ঠাকুরগাঁও-৩ আসন থেকে নির্বাচিত হয়ে চমক সৃষ্টি করেন জাহিদুর রহমান জাহিদ। আজ (২৫ এপ্রিল) একরকম লুকোচুরি করেই সংসদে শপথ নেন জাহিদ।

শপথ নেওয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে শপথ নিয়েছি। দল আমাকে বহিষ্কার করতে পারে জেনেও আমি শপথ নিয়েছি। দল বহিষ্কার করলেও আমি দলে আছি।

তিনি বলেন, সংসদ সদস্য হিসেবে জনগণ আমাকে নির্বাচিত করেছেন। তাদের প্রত্যাশা- আমি যেনো শপথ গ্রহণ করে এলাকা ও দেশের সম্পর্কে আমি ভূমিকা পালন করতে পারি।

তার শপথগ্রহণটি দলের সিদ্ধান্তের বাইরে নেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে জাহিদ বলেন, আমি দীর্ঘদিন অপেক্ষা করেছিলাম। যেহেতু সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছি। এলাকার মানুষের প্রচণ্ড চাপ। ঢাকায় এই ১৫ দিন ধরে আছি এলাকার মানুষের একটাই বক্তব্য শপথ নিয়ে ফিরে আসেন। দীর্ঘ ৩০ বছর ধরে মাঠে লড়াই করেছি। আমি এবার দিয়ে চতুর্থবার নির্বাচন করলাম। এই আসনটি আমাদের বিএনপির ছিলো না। স্বাধীনতার পর থেকে এ আসনটি আওয়ামী লীগের। এই প্রথম বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি বিজয় হতে সক্ষম হয়েছে।

শপথের বিষয়ে দলের কোনো পর্যায়ে কথা হয়েছে কী না জানতে চাইলে জাহিদ বলেন, না, আগে বলেছি। দেখাও করেছি। দল কোনো প্রকার কোনো সম্মতি দেয়নি। দল শপথ নেবে না- এখনো পর্যন্ত সেই সিদ্ধান্তই ফাইনাল।

দল বহিষ্কার করলে কী করবেন- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমার বিষয়ে দল যে কোনো সিদ্ধান্ত নিতেই পারে। সেটা জেনেশুনেই শপথ গ্রহণ করেছি। দল যদি মনে করে বহিষ্কার করবে- তা হলে করতেই পরে। বহিষ্কার করলেও কিন্তু আমি দলে আছি। আমি এই দলের একজন নিবেদিত প্রাণ কর্মী। সেই ছাত্রজীবন থেকে দীর্ঘ ৩৮ বছর এই দলের সঙ্গে সম্পৃক্ত। কাজেই বিএনপি আমাকে বহিষ্কার করলেও আমি তো বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত হবো না। আমি আছি।

সংসদে নিজের ভূমিকা সম্পর্কে তিনি বলেন, আমার নেত্রীর মুক্তির জন্য সংসদে আমার যে ভূমিকা রাখা দরকার তা রাখবো। আমার নেত্রী একজন বয়স্ক মহিলা, ৭৩ বছর বয়স। উনাকে যেন গণতন্ত্রের স্বার্থে মুক্ত করে দেওয়া হয় সংসদে সেই আহ্বান জানাবো। এটাই আমার সংসদ সদস্য হিসেবে প্রথম অঙ্গীকার। আর এলাকার হাজার হাজার নিরপরাধ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আহ্বান করবো। বলবো আপনি এগুলো দেখেন। এগুলোর বাদী পুলিশ। পুলিশ মিথ্যা মামলা করেছে। আপনার লোক কোনো মামলা করেনি। এটা দেখা উচিত। গণতন্ত্রের স্বার্থে সেসব মামলা প্রত্যাহারের দাবি রাখবো।

এদিকে, সংসদ সচিবালয় জানিয়েছে, একাদশ সংসদ নির্বাচনে জয়ী ৩০০ প্রার্থীর মধ্যে জাহিদকে নিয়ে মোট ২৯৫ জন এ পর্যন্ত শপথ নিয়েছেন। বিএনপি থেকে নির্বাচিত আর পাঁচজন এখনও শপথ নেওয়ার বাকি।

উপজেলা নির্বাচনে আ.লীগের ৮৭ প্রার্থীর নাম ঘোষণা
                                  

প্রথম দফায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদের জন্য ৮৭ জন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে আওয়ামী লীগ।
শনিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন দিলেও ভাইস চেয়ারম্যান পদ উন্মুক্ত থাকবে বলে জানান কাদের। চার বিভাগের ১২ জেলার ৮৭ উপজেলায় মনোনীত ৮৭ জন প্রার্থীর নামের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, প্রথম ধাপের নির্বাচনে ৮৭টি উপজেলায় ভোট গ্রহণ করা হবে আগামী ১০ মার্চ। এজন্য চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদের প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ১১ ফেব্রুয়ারি। মনোনয়নপত্র বাছাই হবে ১২ ফেব্রুয়ারি এবং প্রত্যাহারের শেষ দিন ১৯ ফেব্রুয়ারি।

এবার ৪৮১টি উপজেলায় মোট পাঁচ ধাপে নির্বাচন হবে। দ্বিতীয় ধাপে ভোট গ্রহণ করা হবে আগামী ১৮ মার্চ, তৃতীয় ধাপে ২৪ মার্চ এবং চতুর্থ ধাপে ৩১ মার্চ। এছাড়া পঞ্চম ধাপের ভোট গ্রহণ করা হতে পারে পবিত্র রমজানের পর আগামী ১৮ জুন।

তালিকা প্রকাশের সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরা হলেন:

ময়মনসিংহ বিভাগ:

জামালপুর জেলার সদর উপজেলায় মোহাম্মদ আবুল হোসেন, বকশীগঞ্জের এ কে এম সাইফুল ইসলাম, দেওয়ানগঞ্জে মো. আবুল কালাম আজাদ, মেলান্দহে মো. কামরুজ্জামান, মাদারগঞ্জে ওবায়দুর রহমান বেলাল, সরিষাবাড়ীতে মো. গিয়াস উদ্দিন পাঠান, ইসলামপুরে এস এম জামাল আবদুল নাছের।

নেত্রকোনা জেলার সদর উপজেলায় মো. তফসির উদ্দিন খান, খালিয়াজুরীতে গোলাম সিরিয়ার জব্বার, দুর্গাপুরে মোহাম্মদ এমদাদুল হক খান, মোহনগঞ্জে মো. শহীদ ইকবাল, বারহাট্টায় মো. গোলাম রসুল তালুকদার, কলমাকান্দায় মো. আবদুল খালেক, মদনে মো. হাবিবুর রহমান, পূর্বধলায় জাহিদুল ইসলাম, কেন্দুয়ায় মো. নুরুল ইসলাম।

রংপুর বিভাগ:

পঞ্চগড় সদর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে মো. আমিরুল ইসলাম, তেঁতুলিয়ায় কাজী মাহামুদুর রহমান, দেবীগঞ্জে হাসনাৎ জামান চৌধুরী (জর্জ), বোদায় মো. ফারুক আলম, আটোয়ারীতে মো. তৌহিদুল ইসলাম।

নীলফামারী জেলার নীলফামারী সদর উপজেলায় শাহিদ মাহমুদ, ডোমারে তোফায়েল আহমেদ, ডিমলায় মো. তবিবুল ইসলাম, সৈয়দপুরে মো. মোখছেদুল মোমিন, কিশোরগঞ্জে মো. জাকির হোসেন বাবুল, জলঢাকায় মো. আনছার আলী (মিন্টু)।

লালমনিরহাট জেলার সদর উপজেলায় নজরুল হক পাটোয়ারী ভোলা, পাটগ্রামে রুহুল আমিন বাবুল, হাতীবান্ধায় লিয়াকত হোসেন, আদিতমারীতে রফিকুল আলম, কালীগঞ্জে মাহবুবুজ্জামান আহমেদ।

কুড়িগ্রাম জেলার নাগেশ্বরী উপজেলায় মোস্তফা জামান, উলিপুরে গোলাম হোসেন মন্টু, চিলমারীতে শওকত আলী সরকার, রৌমারীতে মজিবুর রহমান, ভুরুঙ্গামারীতে নুরুন্নবী চৌধুরী, রাজারহাটে আবু নুর মো. আক্তারুজ্জামান, ফুলবাড়ীতে আতাউর রহমান, রাজিবপুরে শফিউল আলম, কুড়িগ্রাম সদরে আমান উদ্দিন আহমেদ।

রাজশাহী বিভাগ:

জয়পুরহাট জেলার সদর উপজেলায় এসএম সোলায়মান আলী, পাঁচবিবিতে মনিরুল শহিদ মন্ডল, আক্কেলপুরে আবদুস সালাম আকন্দ, কালাই উপজেলায় মিনফুজুর রহমান, ক্ষেতলালে মোস্তাকিম মন্ডল।

রাজশাহী জেলার পবা উপজেলায় মুনসুর রহমান, তানোরে লুৎফর হায়দার রশীদ, পুঠিয়ায় জিএম হিরা বাচ্চু, দুর্গাপুরে নজরুল ইসলাম, বাঘায় নায়েব উদ্দীপ্ত, গোদাগাড়ীতে জাহাঙ্গীরনগর আলম, চারঘাটে ফকরুল ইসলাম, মোহনপুরে আবদুস সালাম, বাগমারায় অনিল কুমার সরকার।

নাটোর জেলার সদর উপজেলায় শরিফুল ইসলাম রমজান, গুরুদাসপুরে জাহিদুল ইসলাম, বাগাতিপাড়ায় সেকেন্দার রহমান, সিংড়ায় শফিকুল ইসলাম, বড়াইগ্রামে সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী, লালপুরে ইসাহাক আলী।

সিরাজগঞ্জ জেলার সদর উপজেলায় রিয়াজ উদ্দিন, চৌহালীতে ফারুক হোসেন, কাজীপুরে খলিলুর রহমান সিরাজী, রায়গঞ্জে ইমরুল হোসেন, উল্লাপাড়ায় শফিকুল ইসলাম, শাহজাদপুরে আজাদ রহমান, বেলকুচিতে আলী আকন্দ, তাড়াশে সঞ্জিত কুমার কর্মকার।

সিলেট বিভাগ:

হবিগঞ্জ জেলার সদর উপজেলায় মশিউর রহমান শামীম, নবীগঞ্জে আলমগীর চৌধুরী, লাখাই উপজেলায় মুশফিউল আলম আজাদ, বাহুবলে আবদুল হাই, মাধবপুরে আতিকুর রহমান, চুনারুঘাটে আবদুল কাদির লস্কর, আজমিরীগঞ্জে মর্ত্তুজা হাসান, বানিয়াচংয়ে এ আবুল কাশেম চৌধুরী।

সুনামগঞ্জ সদরে খায়রুল হুদা, জামালগঞ্জে ইউসুফ আল আজাদ, শাল্লায় চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মাহমুদ, বিশ্বম্ভরপুরে রফিকুল ইসলাম তালুকদার, ধরমপাশায় শামীম আহমেদ মুরাদ, ছাতকে ফজলুর রহমান, দোয়ারাবাজারে আবদুর রহিম, দিরাই এ প্রদীপ রায়, তাহিরপুরে করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবলু, দক্ষিণ সুনামগঞ্জে আবুল কালাম।

কুমিল্লার মামলায় খালেদার জামিন নিষ্পত্তির নির্দেশ
                                  

বাসে আগুন দিয়ে আটজনকে হত্যা মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নিষ্পত্তি করতে সংশ্লিষ্ট নিম্ন আদালতকে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

আবেদনের শুনানি শেষে বুধবার বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি জাফর আহমেদের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেয়।

এর আগে ২০ জানুয়ারি খালেদার পক্ষে তার আইনজীবী ব্যারিস্টার কায়সার কামাল হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় আবেদনটি দায়ের করেন।

ওই দিন তিনি বলেছিলেন, ‘নিম্ন আদালতে মামলাটির বিচার চলাকালে আমরা হাইকোর্টে জামিন চেয়ে আবেদন করেছি। এ মামলায় নিম্ন আদালতে চারবার জামিন আবেদনের শুনানি পিছিয়েছে। জামিন শুনানি করতে রাষ্ট্রপক্ষ থেকে অহেতুক বিলম্ব করা হচ্ছে।’

কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. আলী আকবর গত ১৬ জানুয়ারি মামলার অভিযোগ গঠন ও বিএনপি প্রধানের জামিন আবেদনের শুনানি পিছিয়ে দেন এবং পরবর্তী শুনানির জন্য ৪ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করেন।

চারদলীয় জোটের অবরোধ চলাকালে ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে আইকন পরিবহনের একটি বাসে পেট্রলবোমা ছোড়া হয়। এতে আগুনে পুড়ে মারা যান আট যাত্রী। আহত হন আরও ২৭ জন। এ ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই নুরুজ্জামান হাওলাদার বাদী হয়ে হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে পৃথক দুটি মামলা করেন।

দুটি মামলায় দুই বছর এক মাস তদন্ত শেষে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। মামলায় খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসমি করা হয়েছে। উভয় মামলায় তাকে আটক দেখানো হয়েছে। তবে তিনি বিস্ফোরক আইনের মামলায় জামিন পেয়েছেন।

গত বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় কারাদণ্ড হওয়ার পর থেকে বিএনপি চেয়ারপার্সন কারাবন্দী আছেন।-ইউএনবি

সোনার বাংলা গড়তে সবার সহযোগিতা চাই: শেখ হাসিনা
                                  

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, বিজয় পাওয়া যত কঠিন, সেই বিজয় রক্ষা করে জনগণের সেবা করা আরও কঠিন। আমাদের ওয়াদা বাংলাদেশেকে আমরা ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্রমুক্ত করবো। আধুনিক ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে চাই। সারাদেশে সুষম উন্নয়ন হবে। দলমত নির্বিশেষে সবার জন্য কাজ করে যাবে সরকার, যে বিজয় অর্জিত হয়েছে তা ধরে রাখতে হবে।

শনিবার বিকেলে রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের মঞ্চে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, ৩০ ডিসেম্বরের বিজয় স্বাধীনতার স্বপক্ষের জনগণের। এই রায় হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধের আদর্শের প্রতি রায়। এ নির্বাচন অন্ধকার থেকে আলোর পথে যাত্রার রায়।

শনিবার দুপুর আড়াইটায় রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এ বিজয় সমাবেশ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও সকাল থেকেই নেতাকর্মীরা উদ্যানে জড়ো হতে থাকেন।

সকাল ১০টা থেকেই সোহরাওয়ার্দী উদ্যান লোকারণ্য হয়ে ওঠে। ‘জয় বাংলা’ স্লোগানে উদ্যান মুখরিত।

নেতাকর্মীদের মধ্যে নারীদের পরনে লাল ও সবুজ রঙের শাড়ি এবং ছেলেদের বেশিরভাগ লাল ও সবুজ রঙের গেঞ্জি ও টুপি পরে সমাবেশে উপস্থিত হয়েছেন।

সংরক্ষিত নারী আসনে আওয়ামী লীগের ফরম বিক্রি শুরু
                                  

জাতীয় সংসদে নারীদের সংরক্ষিত আসনের জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র বিক্রি মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) শুরু হয়েছে। সকাল ১০টায় ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির দলীয় কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র বিক্রির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। 

ঢাকা দক্ষিণ মহিলা আওয়ামী লীগের নেত্রী নার্গিস রহমানকে ফরম দেয়ার মাধ্যমে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। ফরম বাবদ জনপ্রতি ৩০ হাজার টাকা করে নেয়া হচ্ছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম, দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, সদস্য এস এম কামাল, উপ-দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন।

ফরম বিতরণের আগে সকাল ৯টা থেকে বাইরে লম্বা লাইন ধরে দাঁড়িয়ে থাকেন প্রার্থীরা। ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয় থেকে ঢাকা, রাজশাহী, বরিশাল ও ময়মনসিংহ বিভাগের ফরম বিতরণ করা হচ্ছে। অন্যদিকে চট্টগ্রাম, রংপুর, খুলনা ও সিলেট বিভাগের ফরম বিক্রি করা হচ্ছে পাশের নতুন ভবনে।

গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৫৯ আসনে জয়লাভ করে সরকার গঠন করেছে। ফলে একাদশ জাতীয় সংসদে তারা ৪৩টি আসনে সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য দিতে পারবে।

উপজেলা নির্বাচন জোটগত হবে না : কাদের
                                  

আসন্ন উপজেলা নির্বাচন মহাজোটের শরিকরা নিজ নিজ দলের প্রতীকে করবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, উপজেলা পরিষদ নির্বাচন জোটগত হবে না। যার যার দলীয় প্রতীকে ভোট হবে।

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকার ধানমন্ডির হোয়াইট হল কনভেনশন সেন্টারে আওয়ামী লীগ ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার বর্ধিত সভায় এ কথা বলেন কাদের।

আগামী শনিবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুষ্ঠেয় আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ সফল করতে আজকের এ বর্ধিত সভার আয়োজন করা হয়। সভায় ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সংশ্লিষ্ট উপজেলা ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তাদের স্বাক্ষরসহ সম্ভাব্য তিনজন প্রার্থীর নাম কেন্দ্রে পাঠাবেন। সেখান থেকে উপজেলা নির্বাচন মনোনয়ন বোর্ড একজন প্রার্থীকে মনোনয়ন দেবে। এছাড়া নেত্রীর জরিপ হয়েছে, সেই জরিপে যারা এগিয়ে এবং যোগ্য তাদের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়ন দেওয়া হবে। এ সময় বিরোধী দলের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সংলাপ হবে তা কখনও বলেননি বলে জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন, আমি কখনও সংলাপের কথা বলিনি, যার অডিও-ভিডিও রয়েছে। এরপরও কেন ধূম্রজাল সৃষ্টি করা হচ্ছে। এখানে সংলাপের কোনো বিষয় নেই। নির্বাচন নিয়ে সংলাপ হাস্যকর।


   Page 1 of 18
     রাজনীতি
এবার ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ করোনায় আক্রান্ত
.............................................................................................
সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন আইসিইউতে
.............................................................................................
করোনায় মারা গেলেন সাবেক এমপি হাজী মকবুল
.............................................................................................
সাঈদীর পুত্রের সাথে গোপন বৈঠক, সেই যুবলীগ নেতা বহিষ্কার
.............................................................................................
১৬ কোটি মানুষকেই ইন্টারনেট সেবার আওতায় আনবো: জয়
.............................................................................................
ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলায় দর্শনার্থীদের জন্য শাটল বাস
.............................................................................................
বড় ভাইকে অভিনন্দন জানালেন তাপস
.............................................................................................
যুবলীগের চেয়ারম্যান পরশ, সম্পাদক নিখিল
.............................................................................................
সংসদে যাব না, ওই সিদ্ধান্তটা ভুল ছিল : ফখরুল
.............................................................................................
৫ শর্তে ঈদের আগেই মুক্তি পাচ্ছেন খালেদা জিয়া!
.............................................................................................
‘দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে শপথ নিয়েছি’
.............................................................................................
উপজেলা নির্বাচনে আ.লীগের ৮৭ প্রার্থীর নাম ঘোষণা
.............................................................................................
কুমিল্লার মামলায় খালেদার জামিন নিষ্পত্তির নির্দেশ
.............................................................................................
সোনার বাংলা গড়তে সবার সহযোগিতা চাই: শেখ হাসিনা
.............................................................................................
সংরক্ষিত নারী আসনে আওয়ামী লীগের ফরম বিক্রি শুরু
.............................................................................................
উপজেলা নির্বাচন জোটগত হবে না : কাদের
.............................................................................................
আপনারা ভোট দিন, আমরা উন্নয়ন দেব : শেখ হাসিনা
.............................................................................................
রাঙামাটি আসনে পাহাড়ের জটিল সমীকরণ
.............................................................................................
ধানের শীষের কর্মী-সমর্থকদের চালুনী দিয়ে ছেঁকে তুলছে পুলিশ- রিজভী
.............................................................................................
৩ আউলিয়ার মাজার জিয়ারত প্রধানমন্ত্রীর
.............................................................................................
ভাওতাবাজির নির্বাচন কেউ মেনে নেবে না : ড. কামাল
.............................................................................................
মানুষের ভাগ্য উন্নয়নই আমাদের লক্ষ্য: শেখ হাসিনা
.............................................................................................
ধানের শীষে ভোট দিয়ে গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনুন : ফখরুল
.............................................................................................
খালেদার উপদেষ্টা ইনাম আহমেদ চৌধুরী আওয়ামী লীগে
.............................................................................................
নির্বাচন করতে পারছেন না খালেদা জিয়া
.............................................................................................
মাদানীকে সমর্থন জানিয়ে রওশনের মনোনয়ন প্রত্যাহার
.............................................................................................
নির্বাচন করতে পারবেন হিরো আলম
.............................................................................................
শেখ হাসিনার নির্বাচনী প্রচার শুরু বুধবার
.............................................................................................
আওয়ামী লীগ ২৫৮, জাপাসহ অন্যান্য ৪২
.............................................................................................
নির্বাচন করতে বাধা নেই ইমরান এইচ সরকারের
.............................................................................................
বিএন‌পি থে‌কে সঙ্গীতশিল্পী মনির খানের পদত্যাগ
.............................................................................................
আব্বাস-আফরোজার প্রার্থিতা বৈধ
.............................................................................................
আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের মনোনয়নের চূড়ান্ত তালিকা দেয়া হবে আগামীকাল : ওবায়দুল কাদের
.............................................................................................
জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী ঘোষণা স্থগিত
.............................................................................................
আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী চূড়ান্ত
.............................................................................................
অবশেষে নৌকার মাঝি হয়েই নির্বাচনে মাহী
.............................................................................................
নগণ্য ইস্যুকে কেন্দ্র করে প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে: ইমরান
.............................................................................................
কামালকে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির কাছে ফেরার আহ্বান
.............................................................................................
আগামী নির্বাচনে বাংলার মানুষের ভাগ্য নির্ধারণ হবে
.............................................................................................
১৫ ডিসেম্বরের মধ্যে ইশতেহার ঘোষণা: কাদের
.............................................................................................
ইইউ প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বিএনপির বৈঠক
.............................................................................................
যুদ্ধাপরাধীদের ধানের শীষ দেয়া হবে না: নজরুল
.............................................................................................
আন্দোলনের ইস্যু খুঁজছে বিএনপি : রাশেদ খান মেনন
.............................................................................................
কুমিল্লা-৯ আসনে নৌকার মনোনয়ন পেলেন মোঃ তাজুল ইসলাম
.............................................................................................
সকালে হাজী সেলিম বিকেলে মোস্তফা জালাল!
.............................................................................................
আ.লীগে যোগ দিতে বিএনপির অনেকেই সবুজ সংকেতের অপেক্ষায়: কাদের
.............................................................................................
ওয়ার্কার্স পার্টির নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা ২৯ নভেম্বর
.............................................................................................
বিএনপি নেতা রফিকুল ইসলাম মিয়া গ্রেফতার
.............................................................................................
‘বিএনপির সঙ্গে কামাল-মান্নাদের ঐক্য জাতির জন্য দুর্ভাগ্য’
.............................................................................................
আ’লীগের প্রার্থী বাছাই সম্পন্ন, দেখেনিন তালিকা
.............................................................................................

সম্পাদক ও প্রকাশক মো: আবদুল মালেক, যুগ্ন সম্পাদক: নজরুল ইসলাম ভূঁইয়া । সম্পাদক র্কতৃক ২৪৪ ( প্রথম তলা ) ৪ নং জাতীয় স্টেডিয়াম, কমলাপুর, ঢাকা -১২১৪ থেকে প্রকাশিত এবং স্যানমিক প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজেস, ৫২/২ টয়েনবি র্সাকুলার রোড, ঢাকা -১০০০ থেকে মুদ্রিত । ফোন:- ০২-৭২৭৩৪৯৩, মোবাইল: ০১৭৪১-৭৪৯৮২৪, E-mail: info@dailynoboalo.com, noboalo24@gmail.com Design Developed By : Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD